advertisement
আপনি দেখছেন

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত চারদিনে গড়ালো, হতাহতের সংখ্যাও বেড়ে শয়ের কাছাকাছি পৌঁছেছে এরইমধ্যে। চলমান এ সংঘাত পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধে মোড় নিতে পারে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছে জাতিসংঘ।

palestinian rocket rain 4

আজ বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের দিনও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে এখন পর্যন্ত ১৭ শিশুসহ ৮৩ জন ফিলিস্তিনি নিহত এবং আরো ৪৮০ জন আহত হয়েছেন।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, নিহতদের মধ্যে হামাসের সিনিয়র একজন কমান্ডার (গাজা সিটির ব্রিগেডিয়ার) রয়েছেন। তবে সংগঠনটির সশস্ত্র শাখার ১৬ সদস্যকে হত্যার দাবি করেছে ইসরায়েল।

কমান্ডার ও সদস্যদের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস। সংগঠনটির প্রধান ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল হানিয়া বলেন, এবার প্রকাশ্যে যুদ্ধ হবে শত্রুদের সঙ্গে।

ismail hania 2021

এদিকে, গাজা থেকে প্রায় দুই হাজারের মতো রকেট ছোড়া হয়েছে ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিবসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শহরে। এসব হামলায় ৬ জন নিহতের তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটি, আহত হয়েছেন বেশ কয়েক ডজন মানুষ।

মারগু আরোনোভিক (২৬) নামে তেল আবিবের এক শিক্ষার্থী বলছেন, পুরো ইসরায়েল এখন ফিলিস্তিনি হামলার মুখোমুখি। এবারের হামলাটা খুবই ভয়ানক, খুবই খারাপ পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এমতাবস্থায় গাজায় চলমান বিমান হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। গতকাল বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনে কথা বলার পর এ কথা জানান তিনি।

israel vs palestine

এ সময় নেতানিয়াহু দাবি করেন, হামাসের রকেট হামলা প্রতিহত করতে আমাদের পদক্ষেপে সমর্থন জানিয়েছেন বাইডেন। তিনি আরো বলেন, হামলা তো মাত্র শুরু হয়েছে। তাদের ওপর এমনভাবে আক্রমণ করা হবে, যা কল্পনাও করেনি তারা।

অন্যদিকে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন টেলিফোনে কথা বলেছেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহামুদ আব্বাসের সঙ্গে। পরে এক টুইটবার্তায় ফিলিস্তিনিদের মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করার কথা জনান তিনি। সেইসঙ্গে গাজা থেকে ইসরায়েলে রকেট হামলা বন্ধের অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।