advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যে গত ১৬ মে রাতে আসিফ খান নামে এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যা করে একদল হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত তিন যুবককে গ্রেপ্তার করে স্থানীয় পুলিশ। এরপর থেকে তাদের খালাস চেয়ে রাজ্যটির বিভিন্ন স্থানে একের পর এক সমাবেশ করা হচ্ছে।

suraj pal amuকট্টর হিন্দু নেতা সুরজ পাল আমু

এমন একটি সমাবেশ থেকে সেখানকার মুসলমানদের হত্যার ডাক দিয়েছেন কট্টর হিন্দুত্ববাদী রাজনীতিক সুরজ পাল আমু। তিনি একাধারে কার্নি সেনার এক শীর্ষ নেতা ও বিজেপির নানা পদে আসীন। সেই বক্তব্য সম্বলিত একটি ভিডিও নিজের ফেসবুক একাউন্টে আপলোডও করেন সুরজ।

তাতে তাকে বলতে শোনা যায়, গ্রেপ্তার করা হিন্দু ছেলেদের কোনো দোষ নেই। মুসলিমরা আমাদের মা-বোনের ছবি বিকৃত করছে। তাদের কেন হত্যা করব না আমরা?

asif khan in haryanaহারিয়ানায় নিহত আসিফ খান, ফাইল ছবি

ভিডিওটি ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে এরইমধ্যে। তারপরেও এখন পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেয়নি ভারতীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এমতাবস্থায় মহাপঞ্চায়েত থেকে ক্রমাগত হুমকি পাওয়ার অভিযোগ করেছেন সেখানকাররা মুসলিমরা।

আসিফ খানের নির্মম হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছিল তার চাচাতো ভাই রাশিদের সামনেই। তিনি বলছেন, আসিফকে গাড়ি থেকে টেনে-হিচড়ে নামিয়ে পেটাতে পেটাতে মেরে ফেলে উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা।

muslim in haryanaহারিয়ানার মুসলিমরা, ফাইল ছবি

বর্বরভাবে এই হত্যাকাণ্ড সংগঠনের সময় ওই হিন্দু যুবকরা বলছিল, ‘মোল্লা, বাঁচতে দেব না তোদের কাউকেই। জয় শ্রী রাম না বলা পর্যন্ত তোদের কাউকে ছাড়ব না’, জানান রাশিদ। খবর বিবিসি ও দ্য কুইন্টের।