advertisement
আপনি দেখছেন

এক সময় করোনাভাইরাসের আক্রমণে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। সংক্রমণ ও মৃত্যুর হারে অন্য কোনো দেশ তার ধারেকাছেও ছিল না। তারপর ধীরে ধীরে পরিস্থিতির উন্নতি হয়, স্বাভাবিক হয়ে আসে মার্কিন জনজীবন। কিন্তু সম্প্রতি আবারও পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি এজন্য টিকা না নেওয়া ব্যক্তিদের দায়ী করেছেন।

fousi usaঅ্যান্থনি ফাউসি

মূলত ব্যাপক হারে টিকাদান কর্মসূচি চালিয়ে করোনাকে পরাজিত করার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। অবশ্য সরকারের নানা পীড়াপীড়ির পরও কিছু মার্কিনী টিকা গ্রহণ করেননি। এবার সংক্রমণ বাড়তে শুরু করলে তাদের ওপর আক্রমণ শানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শীর্ষ চিকিৎসা উপদেষ্টা ফাউসি। তিনি বলেছেন, টিকা না নেওয়া ব্যক্তিরা কার্যত করোনার বংশ বিস্তারকারী।

করোনাভাইরাসের যে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নতুন করে বিশ্বকে বিপদে ফেলে দিয়েছে, সেটাই সংক্রমণ বাড়িয়ে তুলেছে যুক্তরাষ্ট্রে। গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) ৬ মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ধরা পড়েছে দেশটিতে, যাদের প্রায় ৯০ শতাংশ ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত। অ্যান্থনি ফাউসি বলছেন, সামনে ভয়ংকর দিন আসছে।

এবিসি টেলিভিশনের ‘দিস উইক’ শোতে অংশ নিয়ে বিশ্বখ্যাত এই সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ বলেন, টিকা নিয়ে আপনি যেমন নিজেকে গুরুতর অসুস্থ হওয়া কিংবা মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করেছেন তেমনি অন্যকেও রক্ষা করছেন। একইভাবে যারা টিকা নেননি তারা ভাইরাসটির বংশ বিস্তারে সাহায্য বৈ আর কিছু করছেন না। এটা গুরুতর অপরাধ।