advertisement
আপনি দেখছেন

নতুন তালেবান সরকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের দৃষ্টিভঙ্গির কড়া সমালোচনা করেছে আফগানিস্তান। দেশটির ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি বলেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে তাদের শেষ ব্যক্তিকে সরিয়ে না নেওয়া পর্যন্ত সাহায্য করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, তারা আমাদের ধন্যবাদ জানানোর পরিবর্তে আমাদের সম্পদ জব্দ করেছে, আমাদের সাহায্য তহবিল বন্ধ করেছে। এ সময় জাতিসংঘের দাতা সম্মেলনে আফগানিস্তানের জন্য এক বিলিয়ন ডলারের বেশি জরুরি সহায়তার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ধন্যবাদও জানান মুত্তাকি।

taliiban muttakiগণমাধ্যমের সাথে কথা বলছেন আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী

গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল এবং বিশ্বব্যাংক আফগানিস্তানের তহবিলে প্রবেশাধিকার বন্ধ করে দেয়। ফলে আফগানিস্তানে ব্যাপকভাবে তারল্য সংকট দেখা দেয়।

এদিকে কাবুলে তালেবান নেতৃত্বাধীন প্রশাসনকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিতে এখনো কোনো সরকার সম্মত হয়নি, যা আফগান অর্থনীতিকে আরও বিপন্ন করে তুলতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মুত্তাকি বলেন, সরকার যুক্তরাষ্ট্রসহ যেকোনো দেশের সঙ্গে কাজ করতে ইচ্ছুক। কিন্তু কাবুল কোনো রাষ্ট্রের আজ্ঞাবহ হবে না।

press confarence muttakiসংবাদ সম্মেলনে তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি, ফাইল ছবি

জেনেভার দাতা সম্মেলনে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তেনিও গুতেরেস মন্তব্য করেছিলেন, তালেবানের সাথে জড়িত না হয়ে আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা প্রদান করা অসম্ভব হবে। আমি বিশ্বাস করি বর্তমান মুহূর্তে তালেবানের সাথে জড়িত হওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতির প্রধান জোসেপ বোরেলও মঙ্গলবার বলেছেন, ইইউ'র কাছে তালেবানের সঙ্গে যুক্ত হওয়া ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

এ অবস্থায় মুত্তাকি বিশ্বে যুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে তালেবান নেতৃত্বাধীন সরকারের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক তৈরির জন্য বিশ্বের দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, সারা দেশে নিরাপত্তা বজায় রাখা হচ্ছে। সরকার আফগানিস্তানকে সশস্ত্র গোষ্ঠীর ঘাঁটি হিসেবে অন্য দেশে হামলা চালানোর অনুমতি দেবে না।

মুত্তাকি কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আফগান সম্পত্তি ধ্বংসে ওয়াশিংটনের কড়া সমালোচনা করেন। অন্যদিকে কাতার, পাকিস্তান ও উজবেকিস্তানসহ আরো কিছু রাষ্ট্রের প্রতি তালেবানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সূত্র: আল জাজিরা