advertisement
আপনি দেখছেন

প্রতিবেশী দেশ আজারবাইজানের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে উত্তর-পশ্চিম সীমান্তে আবারও সেনাবাহিনী ও সামরিক সরঞ্জাম মোতায়েন করেছে ইরান। দেশটির বক্তব্য, আমাদের কোনো নিরাপত্তা সমস্যা নেই। সীমান্তরক্ষীরা দেশের সীমান্ত রক্ষা করছে। আমরা সীমান্তে নতুন সরঞ্জাম ও বাহিনী পাঠিয়েছি। ইরানের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন আশতারী সেনা মোতায়েনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কাস্পিয়ান নিউজ।

iran military azerbaijanআজারবাইজান সীমান্তে ইরানের সেনা মোতায়েন

খবরে বলা হয়, আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় ইরানের সামরিক মহড়া নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহ ক্যাস্পিয়ান সাগর তীরবর্তী এই দুদেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। ১ অক্টোবর ইরান আজারবাইজানের সাথে তার সীমান্তের কাছে বড় আকারের সামরিক মহড়া শুরু করে। ৬২৮ খ্রিস্টাব্দে ইহুদিদের বিরুদ্ধে খায়বর যুদ্ধের স্মৃতি হিসেবে মহড়ার নাম দেওয়া হয় ‘খায়বারে বিজয়ীরা’।

এছাড়া তেহরান বাকুকে ইরানের সীমান্তের কাছে ইসরাইলের ‘উপস্থিতি’ থাকার জন্য অভিযুক্ত করেছে। তবে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ দেশটির ভূখণ্ডে ইসরাইলি বাহিনীর উপস্থিতির অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

iran azerbaijan borderইরান-আজারবাইজান সীমান্ত

৫ অক্টোবর ইরান কর্তৃপক্ষ আজারবাইজানকে নাখচিভানে তাদের সামরিক পণ্য পরিবহনের জন্য দেশের আকাশসীমা বন্ধ করার বিষয়ে অনুরোধ করেছে। আর্মেনিয়া, ইরান এবং তুরস্কের মধ্যে এটি আজারবাইজানের একটি ট্রানজিট এস্কক্লেভ। এখান দিয়ে কার্গো বিমানে মালামাল পরিবহন করা হয়।

খবরে বলা হচ্ছে, আজারবাইজানের কারাবাখ অঞ্চলের কিছু অংশে ইরানি লরির অবৈধ চলাচল বন্ধে বাকু কিছু সামরিক কৌশল ও প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ নেয়। এ এলাকায় রাশিয়ান শান্তিরক্ষী বাহিনী সাময়িকভাবে মোতায়েন রয়েছে।

আজারবাইজানের কারাবাখ অঞ্চলে অবৈধভাবে পণ্য পরিবহনের বিষয়ে বাকুর অসন্তোষ সম্পর্কে মুখে বলার পরও দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ১১ আগস্ট আজারবাইজানে ইরানের রাষ্ট্রদূতকে নোট দেওয়া হয়। তবে তাতে কোনো অবশ্য কাজ হয়নি। ১১ আগস্ট থেকে ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৬০টি ইরানি ট্রাক অবৈধভাবে কারাবাখে চলাচল করে। পরে আজারবাইজানের কাস্টমস কর্মকর্তারা আর্ন্তজাতিক গোরাস-গফান মহাসড়কের আজারবাইজানি অংশে ইরানি ট্রাক চালকদের ওপর সড়ক কর আরোপ শুরু করে।

১৩ সেপ্টেম্বর আজারবাইজানের স্টেট কাস্টমস কমিটি এক বিবৃতিতে জানায়, আইন অনুযায়ী দেশে প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় বিদেশি যানবাহন থেকে কর তোলা হচ্ছে। দুদিন পর ১৫ সেপ্টেম্বর আজারবাইজান সীমান্ত অতিক্রম করার জন্য দুই ইরানি ট্রাক চালককে আটক করে।