advertisement
আপনি পড়ছেন

আফগানিস্তান ইসলামিক আমিরাতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাদকবিরোধী বিভাগ ঘোষণা করেছে, অস্ট্রেলিয়ান ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ‘সিফাম’ আফগানিস্তানে গাঁজা উৎপাদন খাতে ৪৩০ মিলিয়ন বিনিয়োগ করতে চায়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খোস্তি টুইটার পোস্টে এই তথ্য জানিয়েছেন। ওয়াডসামের খবর।

cannabis plantগাঁজা উৎপাদনের জন্য আফগানিস্তানের পরিচিতি রয়েছে

তিনি পোস্টে লেখেন, আফগানিস্তানে গাঁজা প্রক্রিয়াকরণ কারখানা খুলতে সম্মত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এই কারখানায় গাজার ঔষুধি গুণ কাজে লাগাতে কাজ হবে। বিশেষ করে ঔষুধি গাঁজা ক্রিম তৈরির বিষয়টি অগ্রাধিকারে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া। আফগানিস্তানের হাজার হাজার একর গাঁজা ফসলে তাদের অধিকার দেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলছেন, কোম্পানির সাথে হ্যাশ প্রসেসিং প্ল্যান্ট নির্মাণের চুক্তির সমস্ত ধাপ চূড়ান্ত করা হয়েছে। যা আগামী দিনে প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করতে সহায়তা করবে। 

ইন্ডাস্ট্রিয়ালিস্ট ইউনিয়নের কর্মকর্তারা বলছেন, আফগানিস্তান এ বছর স্পেন ও ব্রিটেনে ৫০০ টন ট্যালকম পণ্য রপ্তানি করেছে। শিল্পপতিদের ইউনিয়নের প্রধান আব্দুল জব্বার সাফি বলেন, নানগারহার প্রদেশ থেকে লাখ লাখ আফগান মূল্যের ট্যালকম পণ্য এসব দেশে রপ্তানি করা হয়েছে। তারা আশা করছে রপ্তানি আরও বাড়বে।

সাফি বলছেন, দোহার বৈঠকে আফগানিস্তানের স্থগিত করা অর্থ ছাড় করার বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় একমত হলে দেশটির বাণিজ্য ও রপ্তানি খাত আরও প্রসারিত হবে। দেশের রপ্তানি প্রসঙ্গে শিল্পপতি ইউনিয়নের প্রধান বলেন, আফগানিস্তান বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৫০০ ট্রাক শুকনো ফল, তাল এবং অন্যান্য পণ্যসহ বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করছে।