advertisement
আপনি পড়ছেন

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য বুধবার হাজার হাজার যাত্রীকে হংকংয়ের একটি ক্রুজ জাহাজে আটকে থাকতে হয়েছে। নয়জন যাত্রী করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত জানার পর স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নেয়। ওই নয় যাত্রী ওমিক্রন ক্লাস্টারের সাথে যুক্ত ছিল এবং জাহাজটিকে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এএফপি।

hong kong cruise covid‘স্পেকট্রাম অফ দ্য সিজ’ জাহাজ

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রয়্যাল ক্যারিবিয়ান কর্তৃপক্ষ ‘স্পেকট্রাম অফ দ্য সিজ’ নামের জাহাজটিকে ফিরে যেতে বাধ্য করেছে। রোববার জাহাজটি হংকং থেকে যাত্রা শুরু করে, বুধবার সকালের দিকে জাহাজটিকে ফিরে যেতে নির্দেশ দেয়া হয়।

নয়জন যাত্রীকে একটি নতুন ওমিক্রন ক্লাস্টারের সাথে যুক্ত বলে চিহ্নিত করা হয। সংক্রমিত রোগীর ঘনিষ্ঠ পরিচিত ব্যক্তিদের শরীরে করোনা চিহ্নিত হওয়ার পর জাহাজটিকে ফিরে যেতে বলা হয়। জাহাজটি বুধবার সকালে হংকংয়ে ফিরে আসে এবং করোনা পরীক্ষার জন্য হাজার হাজার যাত্রীকে জাহাজে আটকে রাখা হয়।

omicron 2ওমিক্রন

রয়্যাল ক্যারিবিয়ান এক বিবৃতিতে বলেছে, নয়জন অতিথিকে অবিলম্বে বিচ্ছিন্ন করা হয় এবং পরীক্ষায় সবাই নেগেটিভ প্রমাণিত হন। সংস্থাটি মহামারি প্রতিরোধের নীতি ও বিধিগুলো মেনে চলার জন্য কর্তৃপক্ষের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।

গত সপ্তাহে হংকং কর্তৃপক্ষ নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন ক্লাস্টারের সাথে যুক্ত বেশ কয়েকটি আবাসিক ভবন লকডাউন করেছে। কারণ এটি শহরে ওমিক্রন বিস্তার রোধ করার চেষ্টা করছে। অনেক ক্যাথে প্যাসিফিক ক্রু সদস্যরা ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার পরও শহরের রেস্তোরাঁ এবং বারগুলোতে খাওয়া-দাওয়া করে। আইসোলেশনের নিয়ম ভাঙায় ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ে।

রয়্যাল ক্যারিবিয়ান জানিয়েছে, অতিথিরা যারা ক্ষতিগ্রস্ত জাহাজে ছিলেন তারা তাদের ভাড়ার ২৫ শতাংশ ফেরত পাবেন। জাহাজের বৃহস্পতিবারের যাত্রাও বাতিল করা হয়ে, কারণ ক্রুদের বাধ্যতামূলক পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হবে এবং যাত্রীরা সম্পূর্ণ অর্থ ফেরত পাবেন।