advertisement
আপনি পড়ছেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, রাশিয়া ফেব্রুয়ারি মাসেই ইউক্রেন আক্রমণ করতে পারে। গতকাল বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে টেলিফোন কথোপকথনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এমন আশঙ্কা করেছেন। বিবিসি।

biden 2 1জো বাইডেন

অপরদিকে রাশিয়া জানিয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার প্রধান দাবি প্রত্যাখ্যান করার পর তারা সংকট সমাধানে আশাবাদের জন্য সামান্য জায়গা দেখছে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ইউক্রেন সীমান্তে কয়েক হাজার রুশ সেনার জমায়েত একটি আক্রমণের আশঙ্কা তৈরি করেছে। কিন্তু রাশিয়া বরাবর হামলার পরিকল্পনা অস্বীকার করে আসছে। হোয়াইট হাউস ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র এমিলি হর্ন বলছেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন আশঙ্কা করছেন, ফেব্রুয়ারি মাসে রাশিয়ানরা ইউক্রেন আক্রমণ করতে পারে, এমন একটি সুস্পষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

ukrainian president volodymyr zelenskiyভলোদিমির জেলেনস্কি

হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ফোন কলে প্রেসিডেন্ট বাইডেন নিশ্চিত করেছেন, রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ করলে প্রতিক্রিয়া দেখানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্র দেশগুলো প্রস্তুত।

জেলেনস্কি বলেছেন, উত্তেজনা কমানোর সাম্প্রতিক কূটনৈতিক প্রচেষ্টা নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে কথা হয়েছে এবং ভবিষ্যতের জন্য যৌথ পদক্ষেপের বিষয়ে দুজন একমত হয়েছেন। তবে অপর একটি সূত্র জানাচ্ছে, আসন্ন হুমকির ব্যাপারে দুজন একমত নন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হুমকি দিয়েছে, ইউক্রেনে আক্রমণ হলে রাশিয়ার গ্যাসপাইপ লাইন বন্ধ করে দেওয়া হবে। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে পশ্চিম ইউরোপে রাশিয়ান গ্যাস পাঠানো হয়। প্রকল্পটি হল নর্ড স্ট্রিম ২, যার মাধ্যমে রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করার কথা। গতকাল বৃহস্পতিবার বার্লিনে কর্মকর্তারা বলেছেন, রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ করলে প্রকল্পটি নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারে।

অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমা মিত্ররা জানিয়েছে, রাশিয়ার অর্থনীতির ওপর কোনো আক্রমণ হলে তারাও রাশিয়ার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হতে পারে। ১ হাজার ২২৫ কিলোমিটার পাইপলাইনটি তৈরি করতে পাঁচ বছর সময় লেগেছে এবং খরচ হয়েছে ১১ বিলিয়ন ডলার। জ্বালানি প্রকল্পটি বাল্টিক সাগরের নিচ দিয়ে গেছে। এর মাধ্যমে জার্মানিতে রাশিয়ার গ্যাস রপ্তানি দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

কিন্তু প্রকল্পটি গ্যাস সবরবরাহ কার্যক্রম এখনও শুরু করেনি। কারণ প্রকল্প নিয়ন্ত্রকরা গত নভেম্বরে বলেছিলেন, এটি জার্মান আইন মেনে চলে না এবং এর অনুমোদন স্থগিত করা হয়েছে।