advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেন নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনার পারদ কোনোভাবেই নামছে না, উল্টো ক্রমাগতভাবে বেড়ে চলেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটিতে ‘আক্রমণ’ নিয়ে নতুন দাবি সামনে এনেছে ওয়াশিংটন, যা প্রত্যাখ্যান করেছে মস্কো। আজ শুক্রবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এমন চিত্র উঠে এসেছে।

us vs russiaযুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার পতাকা

আগামী মাসে ইউক্রেনে রাশিয়ার ‘আক্রমণ’ করার ‘সম্ভাবনা’ রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গে ফোনে কথা বলার সময় এ কথা উল্লেখ করেন তিনি। এ তথ্য জানান হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র এমিলি হর্ন।

এ বিষয়ে কয়েক মাস ধরে সতর্ক করা হচ্ছে মন্তব্য করে বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া শেষ পর্যন্ত ইউক্রেনে আক্রমণ করলে চূড়ান্ত জবাব দিতে যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্র দেশগুলো প্রস্তুত। এ ব্যাপারে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে আবারো আশ্বস্ত করেছেন জো বাইডেন।

map ukraine russiaইউক্রেন ও রাশিয়ার মানচিত্র

এদিকে, ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধ করার ইচ্ছা নেই বলে জানিয়েছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। তবে নিজেদের ভৌগোলিক ও আঞ্চলিক নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না বলেও সতর্ক করেন তিনি। আজ শুক্রবার মস্কোতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন এই কূটনীতিক।

সেইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র ও তার পশ্চিমা মিত্ররা মস্কোর এই প্রকৃত অবস্থান উপলব্ধি করতে সক্ষম হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন সের্গেই লাভরভ। রাশিয়া যেকোনো সময় ইউক্রেনে আক্রমণ চালাতে পারে- এমন শঙ্কায় নিজেদের নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য।