advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের সামরিক গোয়েন্দা প্রধান মেজর জেনারেল কিরিলো বুদানভ বলেছেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে উৎখাতের জন্য রাশিয়ায় একটি অভ্যুত্থান শুরু হতে যাচ্ছে। শুরু হওয়ার পর তা আর বন্ধ করা যাবে না। এ বছরের শেষ নাগাদ বাস্তবের মুখ দেখবে এই অভ্যুত্থান। খবর এনডিটিভি, ইয়াহু নিউজ।

v putinরাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন

স্কাই নিউজের সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে কিরিলো বুদানভ ভবিষ্যদ্বাণী করেন, আগস্টের মাঝামাঝি নাগাদ রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মোড় ঘুরে যাবে এবং নভেম্বরের মধ্যে রাশিয়ান সেনাবাহিনী ইউক্রেন থেকে পরাজিত হয়ে পালিয়ে যাবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, রাশিয়া পরাজিত হওয়ার সাথে সাথেই পুতিনকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে এবং এতে রাশিয়া ভেঙে পড়বে।

ইউক্রেনে এখনোই রুশ অভিযান প্রেসিডেন্ট পুতিনের পরিকল্পনা মাফিক চলছে না দাবি করে কিরিলো বুদানভ বলেন, এ যুদ্ধই অবশেষে রাশিয়ান ফেডারেশনকে নেতৃত্বের পরিবর্তনের দিকে নিয়ে যাবে। প্রক্রিয়াটি ইতোমধ্যেই চালু হয়ে গেছে এবং ক্রমশই সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি কোনো অভ্যুত্থান কি না, জানতে চাইলে সামরিক কর্মকর্তারা উত্তর দেন, হ্যাঁ। বিষয়টি এভাবেই চলছে এবং এটি বন্ধ করা অসম্ভব।

ukrainian russian war 3রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ

সাক্ষাৎকারে বুদানভ দাবি করেন, পুতিন ক্যান্সার ও অন্যান্য রোগে আক্রান্ত। তিনি খুবই অসুস্থ এবং মানসিক ও শারীরিক দিক দিয়ে খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছেন। তথ্য যুদ্ধের অংশ হিসেবে এ প্রচারণা চালানো হচ্ছে কি না, জিজ্ঞাসা করলে বুদানভ তা প্রত্যাখ্যান করে জানান, দাবির ব্যাপারে তিনি পুরোপুরি নিশ্চিত। তিনি বলেন, এটা আমার কাজ, আমি না জানলে কে জানবে?

উল্লেখ্য, পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে কয়েকদিন ধরেই জল্পনা-কল্পনা বাড়ছে। বেশ কিছু রিপোর্টে দাবি করা হয়, পুতিন গুরুতর অসুস্থ। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত কয়েকটি ভিডিওতে দেখা যায়, বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোকে স্বাগত জানানোর সময় ক্রেমলিন নেতা কাঁপছেন।