advertisement
আপনি পড়ছেন

কানাডার গণমাধ্যমের সম্প্রচার বন্ধ এবং সাংবাদিকদের প্রেস স্ট্যাটাস ও ভিসা প্রত্যাহারের অভিযোগে রাশিয়ার নিন্দা করেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। কানাডা কর্তৃক রাশিয়ার গণমাধ্যম নিষিদ্ধের পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে মস্কো এ ব্যবস্থা নেয়। খবর আনাদোলু।

justin trudeau 2কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

কানাডিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (সিবিসি) ৪৪ বছর ধরে কাজ করে আসছে। সম্প্রতি এ গণমাধ্যমটির মস্কো ব্যুরো বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই সাথে কানাডার সাংবাদিকদের প্রেস স্ট্যাটাস ও ভিসা প্রত্যাহার করা হয়। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ট্রুডো সাংবাদিকদের বলেন, সত্য ও দায়িত্বশীল সাংবাদিকতা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং তার অবৈধ যুদ্ধ ও কর্তৃত্ববাদী প্রবণতার জন্য গভীর হুমকি। আর এ কারণেই সৎ সাংবাদিকতার ভয়ে ভীত পুতিন এ অগ্রহণযোগ্য পদক্ষেপ নিয়েছেন।

তবে তিনি বলেন, পুতিন যে শক্তিশালী গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করার চেষ্টা করছেন এটা দুর্ভাগ্যজনক, কিন্তু আশ্চর্যজনক নয়।

canadian broadcasting corporation cbcকানাডিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (সিবিসি)

এদিকে মস্কোর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, কানাডা রাশিয়া টুডের (আরটি) ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ করেছে। তার পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবেই রাশিয়ায় সিবিসি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কানাডা গত মার্চ মাসে আরটি এবং আরটি ফ্রান্সের সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়। ইউক্রেনের বিরুদ্ধে প্রচার চালানোর অভিযোগে কানাডা এ পদক্ষেপ নেয়। সে সময় ট্রুডো বলেছিলেন, সেগুলো বন্ধ করা দরকার ছিল। কারণ আরটি এবং তাদের ফ্রান্স শাখা ইউক্রেন সম্পর্কে মিথ্যা বর্ণনা দিচ্ছিল।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে পশ্চিমা বিশ্ব রাশিয়ার বিরুদ্ধে শত শত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। রাশিয়ার কূটনীতিকদের বহিষ্কার করে। এর পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে রাশিয়াও অনেক দেশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করে এবং ভিনদেশি কূটনীতিকদের বহিষ্কার করে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার গণমাধ্যমে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টিও শুরু হলো।