advertisement
আপনি পড়ছেন

তুরস্কের বৃহত্তম শহর ইস্তাম্বুলে শীর্ষস্থানীয় বিরোধী নেতা কানন কাফতানসিওগ্লুর সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন। ধর্মনিরপেক্ষ রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) ইস্তাম্বুল শাখার প্রধান কাফতানসিওগ্লুকে হাসিমুখে উল্লসিত জনতার উদ্দেশে হাত নাড়াতে দেখা গেছে। বিবিসি।

kaftancioglu turkeyকানন কাফতানসিওগ্লু

প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান এবং রাষ্ট্রকে অপমান করার জন্য একটি ফৌজদারি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন কাফতানসিওগ্লু। ৫০ বছর বয়সী এই নেতার ‌দণ্ড স্থগিত করেছে আদালত।

তার বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। তবে কাফতানসিওগ্লু বারবার বলেছেন, অভিযোগগুলো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তাকে হয়রানি করতে ও রাজনীতি থেকে দূরে সরাতে সরকারপক্ষ নানা চেষ্টা করছে।

erdogan 25এরদোয়ান

প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের একে পার্টিকে পরাজিত করে ২০১৯ সালে ইস্তাম্বুলের মেয়র নির্বাচনে জিতেছিল বিএইচপির প্রার্থী। সেই বিজয়ের পেছনে কাফতানসিওগ্লুর চেষ্টা ছিল বলে মনে করে একে পার্টি।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ২০১৬ সালে একটি অভ্যুত্থানচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন। এরপর বিচার বিভাগ এবং অন্যান্য রাষ্ট্রীয় সংস্থার ওপর তিনি আরও কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেন। এরদোয়ানের এই কঠোর অবস্থানের জন্য পশ্চিমা মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর অভিযোগের মুখে পড়েন তিনি।

২০১৯ সালে কাফতানসিওগ্লুকে ৯ বছর ৮ মাস ২০ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। আপিলের পর মেয়াদ কমিয়ে ৫ বছরের নিচে করা হয়। তুরস্কের আইন অনুযায়ী, ৫ বছরের কম সাজা সাধারণত স্থগিত করা হয়।

কাফতানসিওগ্লুর এক টুইট পোস্টে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান এবং তুর্কি রাষ্ট্রকে ‘অপমান’ করার পাশাপাশি ‘সন্ত্রাসবাদ প্রচারের’ অভিযোগ আনা হয়েছিল। ২০১৩ সালের সরকারবিরোধী বিক্ষোভ আয়োজন এবং নিষিদ্ধ কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) সমর্থন করার অভিযোগও ওঠে কাফতানসিওগ্লুর বিরুদ্ধে।