advertisement
আপনি পড়ছেন

বিশ্বখ্যাত বিনিয়োগকারী ও মুদ্রা ব্যবসায়ী জর্জ সরোস আশঙ্কা করেছেন, ইউক্রেনে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনা হতে পারে। এজন্য পশ্চিমাদের প্রতি রুশ বাহিনীকে পরাজিত করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার মতে, স্বাধীন সভ্যতা টিকিয়ে রাখতে এটিই উত্তম উপায়। গত মঙ্গলবার সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন সরোস। সেখানেই এসব কথা বলেন তিনি। খবর রয়টার্স।

george sorosজর্জ সরোস

৯১ বছর বয়সী হাঙেরি বংশোদ্ভূত সরোস ১৯৯২ সালে পাউন্ডের বিরুদ্ধে বাজি ধরে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। ইউক্রেন যুদ্ধকে উন্মুক্ত সমাজ ও বদ্ধসমাজের মধ্যে লড়াই হিসেবে দেখছেন সরোস। তিনি বলেন, বদ্ধসমাজের মধ্যে রয়েছে রাশিয়া ও চীন।

রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের কারণে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হতে পারে উল্লেখ করে জর্জ সরোস বলেন, এই যুদ্ধে পশ্চিমা সমাজ টিকতে নাও পারে। এজন্য পশ্চিমা সভ্যতা রক্ষার একমাত্র উপায় হলো পুতিনকে যত দ্রুত সম্ভব পরাজিত করা।

ইউক্রেন যুদ্ধকে বিশেষ অভিযানের কথা বললেও পুতিন মূলত তার নিজস্ব লক্ষ্য বাস্তবায়নে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন। এখন তিনি ভুল বুঝতে পেরেছেন এবং যুদ্ধবিরতির প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন মার্কিন এই ধনকুবের।

সরোসের মতে, যুদ্ধবিরতিতে যাওয়া সহজ নয়। পুতিনকেও বিশ্বাস করা ঠিক হবে না। তিনি এখন আরও অনিশ্চয়তাপূর্ণ। যুদ্ধের ফলাফল সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী না করা গেলেও ইউক্রেনের লড়াই করার সুযোগ আছে বলে মনে করেন তিনি।

এদিকে রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট পুতিনের প্রধান বন্ধু বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোও বলেছেন, পশ্চিমারা যদি ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ না করে তাহলে পরিস্থিতি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের দিকে ধাবিত হবে।

রুশ আগ্রাসনের প্রেক্ষাপটে দাভোসের বিশ্ব অর্থ অর্থনৈতিক সম্মেলনের গুরুত্ব অপরিসীম। ইউক্রেনের এই সম্মেলনের শুরুতে ভিডিও ভাষণ দেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। ব্যবসায়ী নেতাদের প্রতি যুদ্ধে ইউক্রেনকে সমর্থনের জানানের আহ্বানও জানান তিনি।