advertisement
আপনি পড়ছেন

রাশিয়ান অধিকৃত ক্রিমিয়ায় ন্যাটো হস্তক্ষেপ করতে পারে, এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছে রাশিয়া। আর যদি তাই হয় তাহলে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যাবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ। খবর টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

dimitry medvedev russiaদিমিত্রি মেদভেদেভ

নিউজ ওয়েবসাইট আর্গুমেন্টি আই ফ্যাক্টিকে মেদভেদেভ বলেন, ক্রিমিয়া রাশিয়ার একটি অংশ এবং এটি চিরকাল রাশিয়ার থাকবে। ক্রিমিয়া পুনর্দখল করার যে কোনো প্রচেষ্টা আমাদের দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল হবে। আর এটি হলে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ বেঁধে যাবে।

তিনি বলেন, যদি কোনো ন্যাটো সদস্য রাষ্ট্র হামলা করে, তাহলে এর অর্থ সমগ্র ন্যাটোভুক্ত দেশের সাথে রাশিয়া সংঘাতে জড়াবে। অর্থাৎ তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ তথা বিপর্যকর পরিস্থিতি তৈরি হবে।

মেদভেদেভ বর্তমানে রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের ডেপুটি চেয়ারম্যান।

তিনি আরও বলেন, ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন যদি ন্যাটোতে যোগ দেয়, তবে রাশিয়া তার সীমানা শক্তিশালী করবে এবং প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত থাকবে। ইস্কান্দার হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের সম্ভাবনাও রয়েছে।

ইউক্রেনে শপিংমলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত বেড়ে ১৬

ইউক্রেনের একটি শপিংমলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছেরুশ বাহিনী। ক্রেমেনচুক শহরের ওই শপিংমলে হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ জনে এবং আহত হয়েছে ৫৯ জন।

ইউক্রেনের জরুরি পরিষেবার প্রধান সের্গেই ক্রুক এক টেলিগ্রাম পোস্টে জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে ২৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

'জঘন্য' হামলার নিন্দায় জি-৭

দক্ষিণ জার্মানিতে শীর্ষ সম্মেলনে মিলিত হওয়া জি-৭ নেতারা ইউক্রেনের ক্রেমেনচুকের শপিংমলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, আমরা এই নৃশংস হামলায় নিহত নির্দোষ জনমানুষদের জন্য শোক করছি এবং ইউক্রেনের সাথে ঐক্যবদ্ধ আছি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, নিরাপরাধ বেসামরিক মানুষের ওপর নির্বিচার হামলা যুদ্ধাপরাধের শামিল। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন এবং দায়ীদের অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে।