advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের ক্রেমেনচুক শহরে একটি শপিং মলে গত সোমবার ভয়াবহ এক হামলায় অন্তত বিশজন নিহত হয়েছেন। বেসামরিক স্থাপনায় এ হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করছে ইউক্রেন। তবে মস্কো জানিয়েছে, এ হামলার সাথে তারা কোনোভাবেই সম্পৃক্ত নয়। এ পরিস্থিতিতে ঘটনা তদন্তে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কিয়েভ। খবর আনাদোলু।

shopping mall burnক্রেমেনচুক শহরের অ্যামস্টর শপিং মলে অগ্নিকাণ্ড

ইউক্রেন প্রশাসন জানায়, ক্রেমেনচুক শহরের অ্যামস্টর শপিং মলে সোমবারের ওই হামলায় ২০ জন নিহত হওয়ার পাশাপাশি আহত হয়েছে আরো ৫৯ জন। তবে এখনো ৪০ জনের মতো নিখোঁজ থাকায় আশঙ্কা করা হচ্ছে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়বে। রাশিয়ার হামলাতেই বেসরকারি স্থাপনায় হতাহতের এ ঘটনা ঘটেছে।

তবে মস্কো দাবি করছে, তারা এ শপিং মলে কোনো হামলা চালায়নি। বরং শহরে জমা হওয়া পশ্চিমা অস্ত্রভান্ডার ধ্বংস করাই তাদের উদ্দেশ্য ছিল। তাদের সে উদ্দেশ্য সফল হয়েছে।

volodymyr zelenskyy 2ভলোদিমির জেলেনস্কি

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেনকোভ বলেন, আমরা নিখুঁতভাবে লক্ষ্য ভেদ করেছি। পশ্চিমা দেশগুলোর পাঠানো অস্ত্রভান্ডার আমরা সফলভাবে ধ্বংস করতে পেরেছি।

শপিং মলে হামলার ব্যাপারে তিনি মন্তব্য করেন, শপিং মল তো কবে থেকেই বন্ধ। আমরা শুনেছি কোনোভাবে আগুন লেগে ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

রাশিয়ার এই বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ইউক্রেন বিষয়টি তদন্তের জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ঘটনা তদন্তে দূত বা একটি কমিশন পাঠাতে বলেছেন। টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে তিনি এ আহ্বান জানান।

ইউক্রেন বলছে, বিষয়টি নিয়ে হেগের আন্তর্জাতিক আদালতেও তারা অভিযোগ জানাবে। যেসব যুদ্ধবিমান থেকে এই হামলা চলেছে, তার কয়েকটির চালককে ইতোমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়েছে বলেও দাবি করছে ইউক্রেন।