advertisement
আপনি পড়ছেন

রাশিয়ার দাবি, ইউক্রেনের পক্ষ হয়ে লড়াই করার জন্য সিরিয়ার আইএস জঙ্গিদের নিয়োগ দিচ্ছে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা, সিআইএ। রাশিয়ান স্পুটনিক নিউজ এজেন্সি বলছে, উত্তর-পূর্ব সিরিয়ার কুর্দিদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত কারাগার ও শিবিরে যেসব দায়েশ (আইএসআইএল বা আইএসআইএস) জঙ্গি আটক রয়েছে, তাদের ইউক্রেনে পাঠানোর জন্য সিআইএ সক্রিয়ভাবে কাজ করছে।

isil in syriaরাশিয়া: ইউক্রেনে আইএস জঙ্গিদের নিয়োগ দিচ্ছে সিআইএ

একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে স্পুটনিক নিউজ আরও জানায়, সিআইএ দায়েশ জঙ্গিদের ব্যাপারে অতিরিক্ত তদন্ত পরিচালনার নামে ইউরোপে নিজেদের বিভিন্ন স্থাপনায় নিয়ে যাচ্ছে। এভাবে এ পর্যন্ত বেশকিছু উচ্চপদস্থ নেতা এবং প্রায় ৯০ জন দায়েশ জঙ্গিকে আমেরিকা নিজেদের আয়ত্বে নিয়ে গেছে। যাদের বেশিরভাগই ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশ এবং ইরাকের নাগরিক। এদের মধ্যে চেচনিয়া ও চীনের জিনজিয়াং উইঘুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের অভিবাসী কিছু লোকও আছে। তাদের আপাতত সিরিয়ায় মার্কিন সামরিক ঘাঁটি আল-তানফে ভূখণ্ডে জড়ো করা হচ্ছে।

রাশিয়ার আরবি ভাষার আরটি আরবি টেলিভিশন নিউজ নেটওয়ার্ক দ্বারা প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ককেশাস এবং মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর প্রায় ৫০০ দায়েশ সন্ত্রাসী সিরিয়া ও পূর্ব ইউরোপীয় দেশগুলোতে রাশিয়ার সামরিক ইউনিটগুলোর বিরুদ্ধে নাশকতা ও সন্ত্রাসী হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে তারা বর্তমানে মার্কিন ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।

বেশকিছু দায়েশ সন্ত্রাসী স্বীকার করেছে, বিভিন্ন সন্ত্রাস ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড চালাতে তারা সিরিয়ার মধ্য সিরিয়ার প্রদেশ হোমসে আল-তানফ ঘাঁটিতে অবস্থানরত মার্কিন সামরিক বাহিনীর সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।

২০২০ সালের মে মাসে সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন নেটওয়ার্কে সম্প্রচারিত স্বীকারোক্তি দেওয়ার সময় বেশকিছু দায়েশ সদস্য জানিয়েছিল, মার্কিন বাহিনী তাদের সিরিয়ার প্রাচীন শহর পালমিরা, তিয়াস সামরিক বিমানঘাঁটি (টি-ফোর এয়ারবেস), শায়ের গ্যাস ফিল্ড ও এর আশপাশের তেলকুপসহ সিরিয়ার সরকারি সৈন্যদের টার্গেট করার নির্দেশ দিয়েছিল।