আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

সিলেটের গোলাপগঞ্জে বজ্রপাতে গ্যাস লাইন বিস্ফোরিত হয়ে আগুনে পুড়ে পাঁচজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। আহত একজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে উপজেলার লক্ষ্মণাবন্দ ইউনিয়নের ক্লাববাজার এলাকায় এক কলোনিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

sylhet lightning gas rises

নিহতরা হলেন- উপজেলার ফনাইরচক এলাকার মসকন্দ আলীর স্ত্রী শেবু বেগম (২২), দক্ষিণ সুরমার ফজলু মিয়ার স্ত্রী তাসলিমা বেগম (৩০), তার ছেলে তাহমিন (২), দক্ষিণ নোয়াই গ্রামের সেবুল মিয়া (১৭) ও জিয়াউদ্দিন (১৮)। নিহতদের মধ্যে তাসলিমা ৫ মাসের এবং সেবু বেগম ছিলেন সন্তানসম্ভবা। 

গোলাপগঞ্জ থানার ওসি ফজলুল হক শিবলী বলেন, ‘রাত ৩টার দিকে বজ্রপাত হয়। এ সময় কলোনির গ্যাস রাইজারে আগুণ লেগে যায় এবং দ্রুত ঘরগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।'

তিনি বলেন, ‘আগুন ছড়িয়ে পড়লে ঘরের মধ্যেই দগ্ধ হয়ে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়। তাসলিমার স্বামী ফজলু মিয়াকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা লক্ষণাবন্দ এলাকার লয়লু মিয়ার কলোনিতে ভাড়া থাকতেন।'

এলাকাবাসী জানায়, শনিবার রাতে বজ্রপাতের পর বাসার গ্যাস রাইজার বিস্ফোরিত হয়ে কলোনির দুইটি ঘর পুড়ে যায়। ঘরের ভেতরে থাকা পাঁচজন আটকা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। ঘরের জানালা ভেঙে একজনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

Add comment

Security code
Refresh