আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

প্রায় ৬০০ কোটি রুপিরও বেশি সম্পত্তিকে বিসর্জন দিয়ে সন্ন্যাস জীবন গ্রহণ করে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন ভারতের বিলিওনিয়ার ব্যবসায়ী বনওয়ারলাল রঘুনাথ দোশি। গত রোববার দোশি তাঁর পূর্বের ধর্ম ত্যাগ করে জৈন ধর্মে দীক্ষা নেন। এরপরই মূলত তিনি সন্ন্যাস জীবন গ্রহণ করেন।

রঘুনাথ দোশি ভারতে ‘প্লাস্টিক কিং’ নামে পরিচিত। প্লাস্টিকের বিভিন্ন সামগ্রী তৈরির ব্যবসায় দারুণ সফলতার জন্যই তাঁর এ নাম দেয়া হয়েছিলো। এবার জৈন ধর্মে দীক্ষিত হওয়ার পর থেকে দোশি ‘ভাব্যরত্ন বিজয় মহারাজ’ উপাধি গ্রহণ করবেন।

তবে সম্পত্তি বিসর্জন দিলেও সন্ন্যাস জীবন গ্রহণের দিনে আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জৈন ধর্মের ঐতিহ্য অনুযায়ী দোশির দীক্ষাগ্রহণের স্থানটিকে দুর্লভ ফুল আর স্বর্ণ দিয়ে ‘সংযম জাহাজ’-এর আদলে সাজানো হয়েছিলো। আহমেদাবাদ এডুকেশন গ্রাউন্ডে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে প্রায় দেড় লক্ষ দর্শক ছিলেন। অনুষ্ঠানে খরচ হয় ১০০ কোটি রুপি।

রঘুনাথ দোশি মূলত ১৯৮২ সালে জৈন ধর্মের একটি বক্তৃতা শোনার পর থেকেই সন্ন্যাস জীবন গ্রহণ করার ইচ্ছা পোষণ করে আসছিলেন। কিন্তু তাঁর পরিবার তাতে মোটেও সায় দিচ্ছিলো না। তবে এবার তাঁর ৬০তম জন্মবার্ষিকীতে পরিবার তাকে সমর্থন দেয়।

দোশি তাঁর মোট সম্পদের অর্ধেক জৈন সেবালয়ে এবং বাকি অর্ধেক তাঁর পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনের মাঝে ভাগ করে দিয়েছেন।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন

শাস্তিস্বরূপ হাঁটতে হলো ৩০ মাইল!

নতুন প্রজাতির মানুষ আবিষ্কার

জন্ম ও মৃত্যু একসাথেই হলো দু’জনের

Add comment

Security code
Refresh