আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

রংধনুর সাত রঙ দেখা মেলে চোখের পলকে। মুহূর্তেই তার আবির্ভাব আবার মুহূর্তেই তার বিদায়। ক্ষণস্থায়ী এই রংধনু নিয়ে কত কবিতা, কত উপমা কত গল্প কত কল্পনা। কিন্তু এই রংধনু যদি এক মিনিট না এক ঘণ্টাও না টানা নয় ঘণ্টা স্থায়ী হয় তবে কেমন হবে? কী বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে?

Rainbow

অবিশ্বাস্য হলেও এমনটাই ঘটেছে তাইওয়ানে। দেশটিতে একটানা প্রায় ৯ ঘণ্টা স্থায়ী হয়েছে রংধনু। গত ৩০ নভেম্বর ঘটেছিল এই বিরল ঘটনা। প্রকৃতির রঙিন খেলায় টানা ৮ ঘণ্টা ৫৮ মিনিট ধরে রংধনু দেখেছে তাওয়ানের রাজধানী তাইপেইয়েরর মানুষ।

বিজ্ঞানীদের মতে, সূর্যের রশ্মি বায়ুমণ্ডলের সুক্ষ্ম জলকণায় প্রতিসৃত হয়ে রংধনু সৃষ্টি হয়। প্রতিসৃত রশ্মি আকাশের বিপরীত দিকে সাতরঙের রংধনু তৈরি করে। ফলে সকালে পশ্চিম আকাশে ও বিকেলে পূর্ব আকাশে রংধনু দেখা যায়।

তাইপেইয়েরর কাছে পাহাড়ি জায়গায় এ রংধনু দৃশ্যমান হয়েছিল বলে নিশ্চিত করেছেন চাইনিজ কালচার বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক চউ কুন হাসুন। বিবিসিকে চউ জানিয়েছেন, 'সত্যিই আশ্চর্য এবং অবিশ্বাস্য ঘটনা! মনে হচ্ছিল যেন আকাশের উপহার। এটি একটি বিরল ঘটনা।'

দীর্ঘস্থায়ী রংধনু দেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ছবি তুলতে শুরু করেন। কেউ কেউ মুঠোফোনে ভিডিও ধারণ করেন। ওই অধ্যাপকসহ শিক্ষার্থীরা যে ছবিগুলো তুলেছেন তা পেশ করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকডর্সে তোলার পরিকল্পনা করছেন তারা।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, তাওয়ানের স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ৫৭ মিনিট থেকে দুপুর ৩টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী হয়েছিল ওই রংধনু। এর আগে এতক্ষণ টানা রংধনু দেখা যাওয়ার নজির নেই গোটা বিশ্বে কোথাও। সর্বশেষ ১৯৯৪ সালের ১৪ মার্চ ইংল্যান্ডের ইয়র্কশায়ারে সর্বচ্চ টানা ৬ ঘণ্টা রংধনু দেখা গিয়েছিল।

Add comment

Security code
Refresh


advertisement