আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 26 মিনিট আগে

পরপর দুই হারেই কি টালমাটাল হয়ে গেলো বাংলাদেশ ক্রিকেট? অবস্থাদৃষ্টে তো তাই মনে হচ্ছে! এশিয়া কাপের ভারতের বিপক্ষে সুপার ফোরের ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই হঠাৎ করে ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে দলে ডাকা হয়েছে। কিন্তু তাদেরকে যে ডাকা হচ্ছে, তা জানতেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা!

imrul and soumya going to join asia cup

ভারতের বিপক্ষে হারের পরের সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফিকে ইমরুল ও সৌম্যর ডাক পাওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। উত্তরে মাশরাফি বলেন, ‘আমি এখনো নিশ্চিত না কারা আসছে। এ বিষয়ে আসলে কারে সাথে কথা হয়নি।’

মাশরাফি যে এভাবে হঠাৎ করে দলের সঙ্গে থাকা খেলোয়াড়দের উপর থেকে আস্থা হারিয়ে নতুন কাউকে পছন্দ করছেন না, তা প্রকাশ করে দিয়েছেন পরের মন্তব্যে। মাশরাফি বলেন, ‘আমি জানি না যারা আসছে তারা টেকনিক্যালি কোনো কাজ করেছে কিনা। যদি না করে থাকে তাহলে তাদের জন্য এই রকম চাপের সময়ে দলে আসা খুব কঠিন হবে। এশিয়া কাপের মতো বড় আসরে ভালো কিছু করা সহজ কথা নয়। পরের ম্যাচের কথা ভাবুন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে কঠিন বোলারদের খেলতে হবে। তাদেরকে খেলা সহজ কথা নয়।’

liton backing after getting dismissed

অধিনায়ককে না জানিয়ে দুজনকে ডাকার মতো সিদ্ধান্ত বিসিবি কিভাবে নিয়েছে, তা নিয়ে দেখা দিয়েছে বিস্ময়। প্রাথমিক দলে রাখা হলেও ইমরুল ও সৌম্যকে মূল দলে রাখা হয়নি। সে তাদেরকে হঠাৎ করে কেনো এতো প্রয়োজন পড়লো, সেটাই বা কে জানে!

এশিয়া কাপে এখনো বাংলাদেশের কোনো ওপেনার ১০ রানও করতে পারেননি। প্রথম ম্যাচে কোনো রানই করেত পারেননি। তামিম করেন দুই রান। অবশ্য ইনজুরির কারণে তিনি খেলেছেনই মাত্র চার বল। পরের ম্যাচে লিটন বা নাজমুল, কেউই ছুঁতে পারেননি দুই অংকের রান। ভারতের বিপক্ষে সুপার ফোরের ম্যাচেও একই অবস্থা। ওপেনারদের এই ব্যর্থতার বড় মাশুল দিতে হচ্ছে দলকে।

Add comment

Security code
Refresh