আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 48 মিনিট আগে

বয়স ৩৪ হবে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি। এই বয়সের অনেকেই এখনো স্বপ্ন দেখছেন অবশ্য। তবে স্বপ্ন দেখার জন্য যেটা সবার আগে দরকার সেই ফর্ম কবেই হারিয়ে ফেলেছেন কার্লোস তেভেজ। ২০১৫ সালে জুভেন্টাস থেকে ‘ছাঁটাই’ হয়েছিলেন। তারপর থেকে বড় কোনো ক্লাব কিনেনি তেভেজকে। জুভেন্টাস থেকে ফেরার পর বোকা জুনিয়রর্সে খেলেছেন তিন মৌসুম। তারপর চীনের সাংহাই সেনহুয়াতে যোগ দিয়েছিলেন। সেখান থেকেও কদিন আগে ‘ছাঁটাই হয়েছেন।

messi tevez arjentina

জুভেন্টাস থেকে বাদ পড়ার পর থেকেই মূলত তেভেজের ক্যারিয়ারের শেষের শুরু হয়েছে। তারপর দিন যতো গড়িয়েছে আর্জেন্টাইন এই তারকার ক্যারিয়ার শুধু খারাপের দিকেই গেছে। তবে ক্যারিয়ার যেখানেই গিয়ে ঠেকুক না কেন, তেভেজ এখনো স্বপ্ন দেখছেন জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপ খেলার।

গত মৌসুমে সাংহাই সেনহুয়ার হয়ে মাত্র ৪টি গোল করতে পেরেছেন তেভেজ। ফলে তেভেজের আকাশ ছোঁয়া বেতন আর বইতে চায়নি চীনের ক্লাবটি। জানুয়ারির দলবদলে আর্জেন্টাইন তারকাকে ছেড়ে দিয়েছে সেনহুয়া। তারপর তৃতীয় দফায় যোগ দিয়েছেন বোকা জুনিয়র্সে।

ফের শৈশবের ক্লাবে যোগ দিয়েই বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়ার আগ্রহের কথা জানালেন তেভেজ। তেভেজ বলেন, ‘ফুুটবলে আমার আর খুব বেশি সময় বাকি নেই। আমার বয়সের একজন ফুটবলার বিশ্বকাপে থাকাটা দারুণ কিছুই হবে।’

আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগে লিওনেল মেসির সঙ্গে সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়েইন, পাওলো দিবালাদের জায়গা নিয়ে কাড়াকাড়ি রয়েছে। অ্যাঞ্জেলো ডি মারিয়া, হ্যাভিয়ের পাস্তোরে, মাউরো ইকার্দির মতো ফুটবলার নিয়মিত জায়গা পাচ্ছেন না আর্জেন্টিনার সেরা একাদশে। সেখানে তেভেজের মতো একজন এমন কথা বললে ‘আকাশ কুসুম’ ছাড়া আর কী বলা যায়!

Add comment

Security code
Refresh