আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

নতুন মৌসুমের শুরুর দিকে প্রায় টালমাটাল হয়ে পড়েছিল বায়ার্ন মিউনিখ। প্রধান কোচ নিকো কোভাকের ভবিষ্যতও পড়ে গিয়েছিল সংশয়ের মুখে। ধাক্কা সামলে ধীরে ধীরে দলকে ছন্দে ফিরিয়েছেন জার্মান কোচ। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর খুব কাছে পৌঁছে দিয়েছেন বায়ার্নকে। বাভারিয়ানদের নক আউট পর্বে ওঠাটা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা।

lewandowski celebrates scoring his second goal

বুধবার ঘরের মাঠ অ্যালিয়েঞ্জ এরিনায় এইকে অ্যাথেন্সকে ২-০ গোলে হারিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। বাভারিয়ানদের দারুণ এই জয়ের নায়ক রবার্ট লেভানডফস্কি। ম্যাচের দুই গোলের দুটিই যে করেছেন পোলিশ এই স্ট্রাইকার! ৩১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেওয়ার পর ৭১ মিনিটে ডাবলস পূরণ করেন লেভা।

অবশ্য ম্যাচের স্কোর লাইন দেখে বোঝা কঠিন এদিন কতটা দাপুটে ফুটবল খেলেছে বায়ার্ন মিউনিখ। গ্রিক জায়ান্টদের রক্ষণদুর্গে ১৯টি শট নিয়েছে দ্য রেডরা। তন্মধ্যে আটটি শটই লক্ষ্যে ছিল।

অতিথি গোলরক্ষক অতিমানব হয়ে না উঠলে হয়তো আরো গোল পেতে পারতো বায়ার্ন। অথচ পুরো ম্যাচে বায়ার্নের গোলমুখে একটাও শট নিতে পারেনি অ্যাথেন্স। তাই নিঃশর্ত আত্মসমপর্ণ করতে হলো তাদের।

চ্যাম্পিয়নস লিগে এখন অবধি অজেয় থাকা বায়ার্ন চার ম্যাচে অর্জন করেছে দশ পয়েন্ট। টেবিলে তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আয়াক্স পিছিয়ে আছে চার পয়েন্টে। গ্রুপের অন্য ম্যাচে বেনফিকার মাঠে ১-১ গোলে ড্র করে মূলত শীর্ষস্থান খুইয়েছে ডাচ ক্লাবটি। ২৯ মিনিটে গঙ্কালভিস অলিভিয়েরার গোলে পিছিয়ে পরার পর ৬১ মিনিটে দুসান টাডিচের গোলে সমতায় ফেরে আয়াক্স।

ডাচ জায়ান্টদের সঙ্গে ড্র করায় বেনফিকার কিছুটা হলেও টিকে থাকার আশা থাকল। চার ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে আছে পর্তুগিজ ক্লাবটি। চার ম্যাচের সবকটিতে হেরে যাওয়ায় ‘ই’ গ্রুপ থেকে সবার আগে বিদায় নিল অ্যাথেন্স।

একনজরে ফলাফল

সিএসকেএ মস্কো ১-২ এএস রোমা
বায়ার্ন মিউনিখ ২-০ এএইকে অ্যাথেন্স
ম্যানচেস্টার সিটি ৬-০ শাখতার দানেৎস্ক
ভ্যালেন্সিয়া ৩-১ ইয়ং বয়েজ

বেনফিকা ১-১ আয়াক্স
ভিক্টোরিয়া প্লাজেন ০-৫ রিয়াল মাদ্রিদ
জুভেন্টাস ১-২ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
অলিম্পিকি লিওঁ ২-২ হফেনহেইম

Add comment

Security code
Refresh