আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 00 মিনিট আগে

প্রেমঘটিত বিষয়ে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর আত্মহনন, হুমকি-ধামকি, অনেক সময় প্রেমিকের বাড়িতে অনশন, পুলিশের কাছে অভিযোগসহ হরেক রকম ঘটনাই আছে। কিন্তু পারিবারিক বিয়েতে রাজি না হওয়া নিয়ে এই ধরনের ঘটনা খুব একটা শোনা যায় না। এবার পাকিস্তানে পরিবারিকভাবে সম্পন্ন হতে যাওয়া এক বিয়েতে মেয়ে পক্ষ রাজি না হওয়ায় কনের বাড়িতে গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটেছে।

hand grenade

মঙ্গলবার পাকিস্তানের বাণিজ্যিক নগরী লানধি এলাকার কোহি গোথ এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে। পরে আজ বুধবার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। খবরে বলা হয়, গ্রেনেড হামলার ফলে কনেসহ তার এক বোন আহত হয়েছেন। হামলার সময় দুজনই ঘুমাচ্ছিলেন। পরে তাদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গ্রেনেড হামলায় আহত আহত দুই বোন হলেন শারমিন (১৯) ও সনম (১৭)। তাৎক্ষণিক চিকিৎসায় তারা বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত। এই দুই বোনের মধ্যে শারমিনের জন্যই বিয়ের প্রস্তাব এসেছিল।

মেয়ে দুটির পিতা কাদির বখশ পুলিশকে বলেন, 'সাজিদ নামের এক ব্যক্তি তাদের দূর সম্পর্কের আত্মীয়। তিনিই দুই দফায় তার মেয়ের জন্য বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু একবারও তিনি এবং তার পরিবার এই বিয়েতে মত দেয়নি। বিয়েতে রাজি না হওয়ায় সাজিদ তার পরিবারের লোকজনকে বেশ কয়েকবার প্রাণনাশের হুমকি-ধামকি দেন।

এ বিষয়ে ওই এলাকার পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন, 'অভিযুক্ত সাজিদ একটি সন্ত্রাসী গ্যাংয়ের সদস্য। তিনি একজন মাদকসেবী। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে, অপরাধীকে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে।' বিয়েতে প্রত্যাখ্যাত হয়ে গ্রেনেড হামলার ঘটনা বিশ্বে এটিই প্রথম।

Add comment

Security code
Refresh


advertisement