আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

ইরানবিরোধী মার্কিন নিষেধাজ্ঞা না মানার ঘোষণা দিয়েছিল ইরাক, ভারত ও আফগানিস্তান। দেশ তিনটির অনড় অবস্থানের কারণে শেষ পর্যন্ত পিছু হটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর ফলে ইরান থেকে বিদ্যুৎ ও গ্যাস আমদানি অব্যাহত রাখার ‍সুযোগ পাচ্ছে ইরাক। আর ইরানের তেল কেনা ও নৌবন্দর নির্মাণেও ছাড় পাচ্ছে ভারত ও আফগানিস্তান।

irans exhibition ports

নিষেধাজ্ঞার মধ্যে আটটি দেশকে ইরানের কাছ থেকে তেল কেনার ব্যাপারে ছাড় দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর বাইরে থাকা প্রতিবেশী প্রধান বাণিজ্যিক সহযোগী দেশ ইরাকও এ তালিকায় যুক্ত হলো।

মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইরান বিষয়ক বিশেষ কর্মকর্তা ব্রায়ান হুক জানান, ইরাক ও ভারত ইরানবিরোধী নিষেধজ্ঞার ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় পাবে। এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকবে ইরানি তেল ও বিদ্যুৎ ক্রয় এবং বন্দর নির্মাণ।

donald trump 10

বিবিসি জানিয়েছে, ওমান উপসাগরে ইরানের চবাহার বন্দর নির্মাণ করছে ভারত। এ নিয়ে ইরানের সঙ্গে ভারত ও আফগানিস্তানের একটি চুক্তিও হয়েছে। এখান থেকে রেলপথ তৈরিরও কাজ চালছে। এ ক্ষেত্রে আফগানিস্তানও ছাড় পেলো।

ইরানের তেল ক্রয় ও নৌবন্দর নির্মাণের ক্ষেত্রে ভারতকে ছাড় দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। এর ফলে ত্রি-দেশীয় চুক্তির ভিত্তিতে বন্দরের নির্মাণ স্বাভাবিকভাবেই চলবে। এটি চালু হলে তিনটি দেশের পণ্য পরিবহণ সহজ হবে।

উল্লেখ্য, ইরানের তেল রপ্তানি, শিপিং, ব্যাংক ব্যবস্থাসহ অর্থনীতির সবগুলো খাতের ওপর ‘কঠোর’ নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। ছয় জাতি ও ইরানের মধ্যে স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তির আওতায় ইরানবিরোধী এ সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছিল।

Add comment

Security code
Refresh