আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 51 মিনিট আগে

ল্যাপটপ কেনার কথা ভাবছেন? প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো বাজারে প্রতিবছরই তাদের সেরা এবং সর্বশেষ ভার্সনের ল্যাপটপটি হাজির করছে আপনার জন্য। কিন্তু কোনটি আপনার চাহিদা ও প্রয়োজন মেটাবে সেটা জানা জরুরি। তাই ল্যাপটপ কেনার আগে জেনে নিন, এই বছরের সেরা ল্যাপটপগুলো কি কি ফিচার অফার করছে।

chromebook pro

স্যামসাং ক্রোমবুক প্রো

স্যামসাং এই বছর স্বল্পমূল্যে অসাধারণ ফিচারের এই ল্যাপটপটি বাজারে ছেড়েছে। মাত্র ০.৫৫ ইঞ্চি পুরু এবং এক কেজির চেয়ে সামান্য বেশি ওজনের ক্রোমবুক প্রো-তে রয়েছে ২৪০০ x ১৬০০ রেজ্যুলুশনের টাচস্ক্রিন এলইডি স্ক্রিন। ক্রোম ওএস অপারেটিং সিস্টেমের এই ল্যাপটপকে ৩৬০ ডিগ্রি কোণে বাঁকানো যায়, ফলে ট্যাব হিসেবেও ব্যবহারে করা যায় ক্রোমবুক প্রো। ল্যাপটপটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ৫৪৯ মার্কিন ডলার। 

ক্রোমবুক অবশ্য বাংলাদেশের বাজারে তেমন পরিচিত পণ্য নয়। গুগলের বিশেষায়িত অপারেটিং পদ্ধতিতে চলে ক্রোমবুক। মূলত ক্রোম ব্রাউজারের ধারণা থেকেই ক্রোমবুকের অপারেটিং পদ্ধতিটি তৈরি করা হয়েছে। ব্যবসায়িক যোগাযোগ বা গুরুত্বপূর্ণ অফিসিয়াল ডকুমেন্ট নিয়ে যাদের কাজ, ক্রোমবুক হতে পারে তাদের জন্য এক আদর্শ ল্যাপটপ। 

ডেল এক্সপিএস ১৩

শিক্ষার্থীদের জন্য 'ডেলের এক্সপিএস ১৩' ল্যাপটপটি অত্যন্ত উপযোগী। মাত্র ২.৬ পাউন্ড ওজনের ০.৬ ইঞ্চি পুরু ল্যাপটপটিতে রয়েছে প্রসেসর ফিফথ জেনারেশন ইন্টেল কোর আই ৫ ও ৩২০০x১৮০০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের কোয়াড এইচডি টাচস্ক্রনি পর্দা। ল্যাপটপটির ব্যাটারি ৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দেয়। আর দাম শুরু হয়েছে ৭৯৯.৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। 

notebook 9 pro

স্যামসাং নোটবুক ৯ প্রো

যারা গ্রাফিক্সের কাজ করতে চান, এই ল্যাপটপটি তাদের জন্য বেশ উপযোগী। স্যামসাংয়ের এই ল্যাপটপটি একই মূল্যে অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রো-এর তুলনায় বেশ শক্তিশালী কনফিগারেশন দিচ্ছে। এতে রয়েছে ইন্টেল কোর আই সেভেন সপ্তম প্রজন্মের প্রসেসর। ১৩.৩ এবং ১৫ ইঞ্চি মাপের ফুল এইচডি ডিসপ্লে, ২৫৬ গিগাবাইট ফ্ল্যাশ মেমরি এবং উইন্ডোজ ১০ হোম অপারেটিং সিস্টেম। নোটবুক নাইন প্রো-এর ১৫ ইঞ্চি ভার্সনে রয়েছে রেডিয়ন ৫৪০ গ্রাফিক্স কার্ড এবং ১৩.৩ ইঞ্চির ল্যাপটপটিতে রয়েছে ইন্টেলের গ্রাফিক্স চিপ।

আসুস ক্রোমবুক ফ্লিপ

আসুস ক্রোমবুক ফ্লিপ সি৩০২ আপনাকে অর্ধেক দামে আল্টাবুক ব্যবহারের অনুভূতি দেবে। ল্যাপটপটির কি-বোর্ডটি ব্যবহারে আরামদায়ক এবং দেখতে বেশ আকর্ষণীয়। এই ল্যাপটপে রয়েছে ১২.৫ ফুল এইচডি ডিসপ্লে যা ৩৬০ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘোরানো যায়। ফলে আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী এটাকে ল্যাপটপ ও ট্যাবলেট দুটো হিসেবেই ব্যাবহার করতে পারবেন ৷

surface pro

মাইক্রোসফট সারফেস প্রো

মাইক্রোসফটের সারফেস প্রো ল্যাপটপটির সবচেয়ে ভালো দিকটি হচ্ছে এর ব্যাটারি লাইফ। মাইক্রোসফটের দাবি, একবার চার্জ দিয়ে টানা ১৩ ঘণ্টা কাজ করা যাবে নতুন এই ল্যাপটপে। আর মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৯৯ মার্কিন ডলার।

সারফেস ল্যাপটপের বেশ কয়েকটি মডেল রয়েছে। এই ল্যাপটপগুলোকে মনে করা হচ্ছে অ্যাপলের ম্যাকবুকের সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিকল্প। বাজারে এখনো সেভাবে পাওয়া যায় না সারফেস বুক। তবে একটু খোঁজ করলে বাংলাদেশের বাজার থেকেই আপনি সারফেস বুক কিনতে পারবেন। 

Add comment

Security code
Refresh