advertisement
আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশের এবং প্রতিবেশি রাষ্ট্র মিয়ানমারের স্থল পথে যোগাযোগের সড়কটির কাজ প্রায় ৯০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, 'বাংলাদেশের বালুখালী থেকে মিয়ানমারের ঘুমধুম পর্যন্ত সড়কটি বিস্তৃত। আর মাত্র ১০ ভাগ কাজ হলে এটি চালু করা সম্ভব হবে।'

obaydul kader the minister

৪ নভেম্বর, রোববার জাতীয় সংসদে এম আবদুল লতিফ এবং নুরুল ইসলাম মিলনের আলাদা আলাদা প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য দেন ওবায়দুল কাদের। তিনি সংসদে মোট ৫টি আন্তঃদেশীয় সড়ক যোগাযোগ নেটওয়ার্কের সঙ্গে বাংলাদেশের সংযুক্তির কথা জানান। তিনি বলেন, 'বাংলাদেশ-মিয়ানমারের সংযোগ সড়কের মাত্র দুই কিলোমিটার নির্মাণ হলেই দুই দেশের মধ্যে সরাসরি সড়ক পথে যোগাযোগ করা সম্ভব হবে।'

জানা গেছে, বাংলাদেশ এবং মিয়ানমানের এই সড়কটি কক্সবাজার সড়ক বিভাগের অধীনে 'বর্ডার রোড নির্মাণ' প্রকল্পের অধীনে নির্মিত হচ্ছে। সড়কটি সেনাবাহিনীর ১৬ ইসিবি বাস্তবায়ন করছে। যোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, 'প্রকল্পটিতে খরচ হচ্ছে প্রায় ৮৪ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। ২০১৫ সালের জুন মাসে এই সড়ক নিমার্ণের প্রকল্পটি শুরু হয়। যা ২০১৭ সালে শেষ হওয়ার কথা।'

তিনি বলেন, 'বর্তমানে বাংলাদেশ-ভারত মহাসড়ক পথে যোগাযোগ আছে। সুবিধাজনক ভৌগলিক অবস্থানের কারণে বাংলাদেশ মোট পাঁচটি আন্তঃদেশীয়, আঞ্চলিক ও উপআঞ্চলিক মহাসড়ক নেটওয়ার্ক উদ্যোগে সম্পৃক্ত। ভারত হয়ে নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে সড়ক পথে যোগাযোগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামীতে মিয়ানমার দিয়ে চীনেও সড়ক পথে বাংলাদেশের যোগাযোগ স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে।

আপনি আরো পড়তে পারেন

কুমিল্লায় ভারতীয় নাগরিক গ্রেপ্তার

কড়াইল বস্তিতে আগুন: পুড়ে ছাই ৫ শতাধিক ঘর

অপ্রকাশিত তদন্ত প্রতিবেদন দেখতে চায় ফিলিপাইন, অর্থমন্ত্রীর 'না'

দেশের ১৩ ক্লাবে জুয়া খেলা নিষিদ্ধ করলো হাইকোর্ট

মির্জা ফখরুল: সরকারের জনগণের মেজাজ বোঝে না