advertisement
আপনি দেখছেন

স্বামী পুলিশের সাবেক ওসি। কতোই বা বেতন পেতেন। কিন্তু তার ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা। কিনেছেন ফ্ল্যাট। আছে ব্যবসা। সব মিলিয়ে অঢেল সম্পত্তির পাহাড়। কীভাবে এলো এতো সব? এমন প্রশ্ন স্ত্রীর। তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) অনুরোধ করেছেন স্বামীর সম্পদের তদন্ত করতে।

map of khulna

এই ঘটনা ঘটেছে খুলনায়। অভিযোগকারীর নাম নাছরিন আক্তার। তিনি চট্টগ্রামের পটিয়া থানার সাবেক ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরীর স্ত্রী।

নাছরিন আক্তার আজ খুলনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ডেকে এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আমার স্বামী চোরা কারবারি, মাদক ব্যবসায়ী এবং সন্ত্রাসীদের সঙ্গে মিলে অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। তাকে নানা সময়ে নিষেধ করলেও তিনি কথা শোনেননি। বরং আমাকে নির্যাতন করেছেন।’

নাছরিন জানান, চট্টগ্রামে থাকতে তার স্বামী স্বর্ণের বারের চোরা কারবারি করতেন। এ সব নিয়ে তাদের মধ্যে নানা সময়ে ঝগড়া হতো। এমন কি স্বামীর দুর্নীতির কারণে সৃষ্টি হওয়া ঝগড়ার জন্য ১৮ বছর সংসার ভাঙতে চলেছে বলেও মন্তব্য করেন নাছরিন।

নাছরিন জানান, তিনি ইতোমধ্যেই স্বামীর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। এ দিকে রেফায়েত উল্লাহ চোধুরীর সঙ্গে সংবাদ মাধ্যম যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘নাছরিন আমার বিরুদ্ধে অপ্রচার চালাচ্ছে। আমি তার কিছু কর্মকাণ্ড ধরে ফেলার পর সে এ রকম করছে।