advertisement
আপনি দেখছেন

শুল্ক গোয়েন্দাদের তৎপরতায় ঢাকার রাস্তায় অহরহ পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন দামি দামি গাড়ি। এই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মহাখালী ডিওএইচএস আবাসিক এলাকায় একটি মার্সিডিজ জিপ মডেলের গাড়ি পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

mercedige in road

ইতোমধ্যেই গাড়িটি নিজেদের জিম্মায় নিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। শুল্ক গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, রাস্তায় পাওয়া এই গাড়িটির আনুমানিক মূল্য প্রায় দুই কোটি টাকা।

দুপুরে মহাখালী ডিওএইচএস ১৯ সি সড়কের ২৮৮ নম্বর বাড়ির সামনে গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এটির রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা মেট্রো ঘ-১৪-৪৭২৭ বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মইনুল খান।

গাড়ির নাম্বার নিয়ে ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গাড়িটির নিবন্ধন নম্বরটি ভুয়া। এই নাম্বার বিআরটিএতে নিবন্ধিত নয়।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল প্রায় চার কোটি টাকা মূল্যের একটি পোরশে গাড়ি চিঠি লিখে রেখে রাস্তায় ফেলে গিয়েছিলেন অজ্ঞাত কেউ। রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকা থেকে জার্মানির তৈরি পোরশে মডেলের গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

ওই গাড়িটিরও মালিকের নাম ঠিকানা কিছুই জানা যায়নি। তবে নিজেকে সমাজের একজন সম্মানি ব্যক্তি উল্লেখ পূর্বক শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক মইনুল খান বরাবর একটি চিঠি লিখে রেজিস্ট্রেশনহীন ওই গাড়িটি হাতিরঝিলের রানার বিল্ডিংয়ের সামনের ব্রিজের ওপর ফেলে যাওয়া হয়েছিলো।