advertisement
আপনি দেখছেন

গত ৫ মে অনুষ্ঠিত হওয়া বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের রাতে অপ্রীতিকর ঘটনার সম্মুখীন হওয়ায় আইনি ব্যবস্থা নিলেন অভিনেতা শাকিব খান। সোমবার রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছেন তিনি। যেখানে অভিযুক্তদের তালিকায় রয়েছে দুই অভিনেতা জায়েদ খান ও সাইমন সাদিকের নাম।

shakib khan says someone trying to destroy him

শাকিব লিখিত অভিযোগে বলেন, 'বর্তমানে আমি আমি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি পদে দায়িত্বরত রয়েছি। গত ৫ মে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের রাতে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে আমি জানতে পারি, নির্বাচনের ফলাফল তখনও প্রকাশিত হয়নি এবং আপিল বিভাগের লোকজন ভোট গণনার কেন্দ্রে অবস্থান করছেন।'

জনপ্রিয় এই অভিনেতা বলেন, 'বর্তমান সভাপতি হিসেবে বিষয়টি দেখা আমার এখতিয়ারভুক্ত হওয়ায় আমি বিএফডিসিতে যাই এবং ঘটনার সত্যতার চাক্ষুখ প্রমাণ পাই। আপিল বিভাগের লোকজন ছাড়াও বাইরে লাল গেঞ্জি পরিহিত এক লোক পিস্তল হাতে দাঁড়িয়ে ছিল এবং আরো কয়েকজন চাপাতি হাতে তার পিছনে অবস্থান নিয়েছিল।'

শাকিব খান বলেন, 'বহিরাগত এতোগুলো লোক বিএফডিসির ভেতর এতো রাতে কীভাবে প্রবেশ করলো তা জানতে চাইলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সায়মন সাদিক, সাইফ খান কালু, অভিনেতা জিয়াসহ অনেকেই আমার ওপর হামলার চেষ্টা করে।'

শাকিব খান জিডিতে উল্লেখ করেন যে, তার নামে মিথ্যা মামলা করার হুমকি দেয়া হচ্ছে এবং তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এই সমস্ত ঘটনার জন্য মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে তিনি অভিনেতা জায়েদ খানসহ অন্যান্যের নাম উল্লেখ করেন। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার কর্তব্যরত অফিসার শাকিব খানের এই লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করেন এবং এসআইকে বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব দেন।