advertisement
আপনি দেখছেন

বহুল আলোচিত-সমালোচিত রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ও তাঁর ছেলে শাফাত আহমেদের যাবতীয় ব্যাংক হিসাব চেয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

safat sadman

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে দিলদার ও শাফাত আহমেদের ব্যাংক হিসাব চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে চিঠি পাঠিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। এছাড়াও আপন জুয়েলার্সের ব্যাংক হিসাবও তলব করা হয়েছে।

শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মইনুল খান বলেন, 'গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে অভিযোগ উঠেছে যে, ধর্ষণের ঘটনাটি চাপা দিতে বিপুল অর্থ খরচের চেষ্টা চলছে। এই অভিযোগের সত্যতা যাচাই ও সত্য হলে অর্থের উৎস ডার্টি মানি কিনা সেটাই আমরা খতিয়ে দেখবো। এছাড়া তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রমের স্বচ্ছতাও যাচাই করা হবে।'

গত ৬ মে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে বনানী থানায় পাঁচজনকে আসামি মামলা করা হয়েছে। এক পরিচিত ব্যক্তির জন্মদিনের পার্টিতে অংশ নিতে গিয়ে ওই দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়। সেখানে আরো বলা হয়, বনানীর রেইন ট্রি হোটেলের দুটি কক্ষে তাঁদের আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে।

এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট থেকে মামলার দুই প্রধান আসামি শাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফ গ্রেপ্তার হয়। আজ শুক্রবার সকালে তাদের সিলেট থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে আনা হয়।