advertisement
আপনি দেখছেন

বিদেশিদের মধ্যে ভারতীয়রা সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে চাকরি করছে। দেশটির ৩৫ হাজার ৩৮৬ জন নাগরিক বাংলাদেশ কাজ করছেন। রোববার জাতীয় সংসদে কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম মাইদুল ইসলামের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এ তথ্য জানান।

asaduzzaman khan kamal

তিনি বলেন, পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ মোট ৮৫ হাজার ৪৮৬ জন বিদেশি নাগরিক বর্তমানে চাকরি করছেন। ভারতের পর দ্বিতীয় অবস্থানটি চীনের। দেশটির ১৩ হাজার ২৬৮ জন কাজ করছেন। তৃতীয় স্থানে থাকা জাপানের ৪,০৯২ জন, চতুর্থ স্থানে থাকা উত্তর কোরিয়ার ৩,৩৯৫ জন, পঞ্চম স্থানে থাকা মালেয়েশিয়ার ৩ হাজার ৮০ জন চাকরি করছেন। আর পাকিস্তানের নাগরিক চাকরি করছেন ৭১৩ জন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওই বিদেশি নাগরিকরা বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞ, কান্ট্রি ম্যানেজার, ডাইরেক্টর, কনসালট্যান্ট, শিক্ষক, চিকিৎসক, প্রকৌশলী,নার্স, কোয়ালিটি কন্ট্রোলার, মার্চেন্ডাইজার, টেকনেশিয়ান, সুপারভাইজার, ম্যানেজার, প্রোডাকশন ম্যানেজার, কুক ও ফ্যাশন ডিজাইনার প্রভৃতি ক্যাটাগরিতে কাজ করেন।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিদেশিদের কাজের শ্রেণি বা ভিসার ধরণ সংসদের কাছে উপস্থাপন করেন। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী, বিজনেস ওনার হিসেবে ৬৭ হাজার ৮৫৩ জন ভিসা নিয়েছেন। আর বিশেষজ্ঞ হিসেবে ভিসা নিয়েছেন ৮ হাজার ৩০০ জন।

এছাড়া শ্রীলংকার ৩,০৭৭ জন, থাইল্যান্ডের ২,২৮৪ জন, যুক্তরাজ্যের ১,৮০৪ জন, যুক্তরাষ্ট্রের ১,৪৪৮ জন, জার্মানির ১,৪৪৭ জন, সিঙ্গপুরের ১,৩২০ জন, তুরস্কের ১,১৩৪ জন, ফ্রান্সের ৯০৭ জন, ইন্দোনেশিয়ার ৮৫৯ জন, ফিলিপাইনের ৮৫৯ জন, রাশিয়ার ৮৪৫ জন, নেদারল্যান্ডসের ৮১৮ জন এবং ইতালির ৭৯৫ জন নাগরিক বাংলাদেশে চাকরি করছেন।