advertisement
আপনি পড়ছেন

একদিনে দুই প্রকাশকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে রাজধানীতে। এর মধ্যে একজন গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকলেও মৃত্যু হয়েছে আরেক প্রকাশকের। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হামলার বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার আগেই আলকায়েদার উপমহাদেশ শাখা এর দায় স্বীকার করে একটি বার্তা পাঠিয়েছে দেশের গণমাধ্যগুলোর কাছে।

blogger kill

আজ সন্ধায় আলকায়েদার উপমহাদেশ শাখা দেশের প্রধান প্রধান গণমাধ্যম বরাবর প্রকাশকের উপর হামলার দায় স্বীকার করে বার্তা পাঠিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে গণমাধ্যগুলো। বার্তায় পরিষ্কার অক্ষরে হামলার দায় দায়িত্ব আনসার আল ইসলাম বা আল কায়েদা ভারত শাখা নামের সংগঠনটি স্বীকার করছে বলে খবর প্রকাশ করেছে গণমাধ্যমগুলো।

বার্তায় বলা হয়েছে, 'এই দুই প্রকাশক ইসলাম এবং রাসুল সা.কে কটাক্ষকারীদের বই প্রকাশ করত, তাই আমরা রাসুল (সা.) ও ইসলামকে কটাক্ষ করে বই প্রকাশকারী এই দুই প্রকাশকের ওপর প্রতিশোধ নিতেই হামলা চালিয়েছি।'

এছাড়াও এই বার্তায় পরবর্তীতে কারা টার্গেট তাদের নামের তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। শিগগিরই ইসলাম এবং রাসুল সা. সম্পর্কে খারাপ মন্তব্য করায় তারাও এমন হামলার শিকার হবেন বলে জানানো হয়েছে।

আজ রাজধানীর লালমাটিয়ার শুদ্ধস্বরের কার্যালয়ে ঢুকে প্রকাশক আহমেদুর রশীদ টুটুল, ব্লগার রণদীপম বসু এবং তারেক রহিম নামের এক ব্লগারকে কুপিয়ে আহত করার চার ঘণ্টা পরই শাহবাগের আজিজ মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর কর্ণধার ফয়সাল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

পর পর দুইটি হামলার পরেই এর দায় স্বীকার করে নিল আন্তর্জাতিকভাবে সন্ত্রাসী স্বীকৃতি পাওয়া এ সংগঠনটি। এর আগেও ইসলাম সম্পর্কে কটূক্তিকারী ব্লগার নিলয়কে হত্যা করার পরও একই স্টাইলে দায় স্বীকার করে নিয়েছিল আলকায়েদার এ উপমহাদেশ শাখা। এবারও আগের হামলার মতোই দুই প্রকাশক হামলার দায়ও স্বীকার করে নিলো এ সংগঠনটি।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

স্মার্ট কার্ড পাচ্ছেন না এক কোটি ভোটার

১লা নভেম্বর থেকে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

লন্ডনে খালেদা জিয়ার গাড়িতে হামলার খবর বিএনপি'র অস্বীকার