advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদে নবনির্বাচিত নেতাদের ব্যক্তিস্বার্থের ঊর্ধ্বে উঠে মিলেমিশে দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

pm 16 march 19

শনিবার বিকালে গণভবনে ডাকসু ও হল সংসদের নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও ডাকসুর নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এবং ডাকসুর সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনসহ অন্যরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'কে ভোট দিয়েছে, কে দেয়নি সেটা দেখার দরকার নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলে যারা জিতেছো তাদের দায়িত্ব হচ্ছে হলের ভালোমন্দ দেখভাল করা। আর যারা ডাকসুর কেন্দ্রীয় সংসদে জিতেছো তাদের দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভালোমন্দ দেখা। বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থীর তোমরা নেতা। সবাইকে সমানভাবে দেখতে হবে।'

ডাকসু নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আমি সবসময় চেয়েছি নির্বাচন যেন শান্তিপূর্ণ হয়। কোনো বোমার আওয়াজ, গুলির আওয়াজ যেন না ঘটে এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছি। নির্বাচনে কে ভোট পেল, আর কে পেল না, তা নিয়ে মাথাব্যথা নেই। ছাত্র-ছাত্রী যা চাইবে তাই হবে। ভোটের পরিবেশ সুষ্ঠু রাখার ব্যাপারে নজর দিতে বলেছি।'

শেখ হাসিনা বলেন, 'একটা সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্ত্রের ঝনঝনানি শোনা যেত। গুলি, বোমা নিয়মিত ছিল। খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন তিনি বলেছিলেন, আওয়ামী লীগকে শিক্ষা দিতে তার ছাত্রদলই যথেষ্ট। তার জবাব আমরা ছাত্রলীগের হাতে কলম তুলে দিয়েছিলাম। আমরা বিশ্বাস করি। অস্ত্রের চেয়ে কলমের জোর বেশি।'

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় ঢাবি ভিসির বাসভবনে হামলার সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, 'ভিসির বাড়িতে হামলা, আগুন দেয়ার ঘটনা ভালো কাজ নয়। আমাদের সময় ভিসির বাড়িতে সরাসরি আক্রমণ কখনো হয়নি। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সেটাই ঘটেছে।' নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের মধ্যে অন্যরা প্রবেশ করেছিল বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

বক্তব্যে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের প্রশংসা করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, 'শোভন যা করেছে সেটিই রাজনৈতিক নেতৃত্বের আসল বৈশিষ্ট্য। নির্বাচনে হার জিত থাকবেই তা মেনে নিয়েই চলতে হবে এবং শোভন রাজনৈতিক দূরদর্শিতার প্রমাণ দিয়েছে। ভবিষ্যতে শোভন আরো ভালো জায়গায় যাবে।'

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় ডাকসু নির্বাচন। যেখানে সহসভাপতি (ভিপি) নির্বাচিত হন কোটা সংস্কার আন্দোলন থেকে উঠে আসা নেতা নুরুল হক নুর। আর সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে জয়লাভ করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এছাড়াও সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) নির্বাচিত হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন।

sheikh mujib 2020