advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

মধ্যপ্রাচ্যের ইরাক ও সিরিয়ায় উত্থান হওয়া জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট বা আইএসের পতন ঘটেছে। কিন্তু এর মধ্যেই বাংলাদেশে সংগঠনটির নতুন ‘খলিফা’ হিসেবে শাইখ আবু মুহাম্মাদ আল বাঙ্গালীর নাম ঘোষণা করা হয়েছে। গত ১২ মার্চ আইএসের মুখপত্র ‘আত তামক্বিন’-এর একটি সংখ্যায় তার নামের সঙ্গে কিছু নির্দেশনাও প্রকাশ করা হয়।

is symbol pictureআইএসের প্রতীকি ছবি

এ বিষয়ে দেশের প্রথম সারির একটি জাতীয় দৈনিক একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়, এ অঞ্চলে আইএসের আগের খলিফার নাম ছিল আবু ইব্রাহীম আল হানিফ। তার ব্যাপারে অনুসন্ধান এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

এদিকে আইএস প্রধানের পক্ষ থেকে নিযুক্ত প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার দাবি করেছেন নতুন খলিফা আবু মুহাম্মাদ আল–বাঙ্গালী। এরই মধ্যে বিভিন্ন অভিযানে আইএসের নিহত কর্মী-সমর্থকদের বদলা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এ বিষয়ে আত তামাক্কিনে তার একটি নির্দেশনামূলক সাক্ষাৎকারও প্রকাশ করা হয়েছে।

তবে আবু মুহাম্মাদ আল বাঙ্গালীর পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের একটি সূত্র। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সূত্র বলছে, গেল বছরের অক্টোবরে নরসিংদীতে এক অভিযানে এই নামটি প্রথম কানে আসেছিল। ধারণা করা হয়, ওই অভিযানে নিহত দুজনের একজনের নাম আবদুল্লাহ আল বাঙ্গালী।

ফলে পুলিশ আশা করছে, নরসিংদীর ওই ঘটনার সূত্র ধরেই আইএসের কথিত এই নতুন খলিফাকে শনাক্ত করা সম্ভব হবে। এ নিয়ে এরই মধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এ এস এম আলী আশরাফ বলেন, ‘সারা বিশ্বেই জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো দু’ভাবে চলে থাকে। এর একটি হচ্ছে, সুনির্দিষ্ট ঘাঁটি গেড়ে কার্যক্রম পরিচালনা। আর অন্যটি হচ্ছে, বিভিন্ন অঞ্চলে শাখা গঠন করে দায়িত্ব বণ্টন করে দেয়া। আল কায়েদা ও আইএসের ক্ষেত্রে দুটোই প্রযোজ্য।’

sheikh mujib 2020