advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যেসব ভারতীয় বিমান চলাচল করে সেসব বিমানে নিজস্ব সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী (স্কাই মার্শাল) নিয়োগ দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে ভারত। ইতোমধ্যে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষকে (বেবিচক) পাঠিয়েছে ভারতীয় দূতাবাস।

air india

গত ১০ মার্চ পাঠানো ওই চিঠিতে ভারতীয় দূতাবাস বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চলাচলরত ভারতীয় বিমানে নিজস্ব সশস্ত্র স্কাই মার্শাল নিয়োগের প্রস্তাব দেয়। ভারতে ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড থেকে বাছাই করা কমান্ডো দিয়ে স্কাই মার্শাল গঠন করা হয়।এই কমান্ডোরা উড়োজাহাজ ছিনতাই এবং জিম্মি পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ পেয়ে থাকে।

চিঠি পাওয়ার কথা স্বীকার করে এই প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য ইতোমধ্যেই বৈঠক ডেকেছে বেবিচক। তারা এই বিষয়টি নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বসতে চায়।

বেবিচকের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম নাঈম হাসান জার্মানির সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলেকে বলেন, 'এয়ারলাইন্সগুলো চাইলে তাদের উড়োজাহাজে আলাদা সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী রাখতে পারে। এটা নিয়মের মধ্যেই আছে। শুধু প্রয়োজনীয় অনুমোদন নিতে হয়।'

তিনি বলেন, 'আমরা ভারতীয় দূতাবাসের মাধ্যমে চিঠি পেয়েছি। বিষয়টি নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক হবে। তারপরই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে যে, অনুমোদন দেয়া হবে কিনা।'

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে বিমানবন্দরের নিরাপত্তার বিষয়টি বেশ আলোচিত। গত মাসে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজে এক যাত্রী পিস্তল নিয়ে উঠে যায় এবং বিমানটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। এরপর আরও তিন বার অস্ত্রসহ বিমানবন্দরে ঢুকে যাওয়ার ঘটনা ঘটে।

নিরাপত্তার ব্যাপারে শঙ্কিত হয়ে ভারত এমন প্রস্তাব করেছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নাঈম হাসান বলেন, 'বিশেষ কোনো কারণ নেই। এটা স্বাভাবিক ঘটনা। যে-কোনো এয়ারলাইন্স চাইলে তাদের যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য অনুমোদন নিয়ে তাদের উড়োজাহাজে নিজস্বরক্ষী রাখতে পারে।'

এদিকে এ ব্যাপারে ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

বেবিচক সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশে ২৯টি বিদেশি এয়ারলাইন্স তাদের উড়োজাহাজ পরিচালনা করে। এর মধ্যে সৌদি আরবের এয়ারলাইন্স সাউদিয়া তাদের উড়োজাহাজে যাত্রীদের নিরাপত্তায় নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষী ব্যবহার করে।

sheikh mujib 2020