advertisement
আপনি দেখছেন

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যশোরে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার আইসিটি পার্কসহ ৬৫টি প্রতিষ্ঠানে অগ্নি নির্বাপণের ব্যবস্থায় ত্রুটি চিহ্নিত হয়েছে। এসব ভবনে অগ্নিকাণ্ড ঘটলে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হতে পারে। রাজধানীর বনানীতে বহুতল ভবন এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৬ জন নিহতের পর যশোর ফায়ার সার্ভিস মাসব্যাপী অভিযান শুরু করেছে।

ict park in jessore

অভিযানের প্রথম দিনে বৃহস্পতিবার যশোরে পাঁচটি বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডের প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা পরিদর্শন ও তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। হাইটেক কর্তৃপক্ষের বহুতল ভবন শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্কে গিয়ে অগ্নি নির্বাপণের সকল সরঞ্জাম পাওয়া গেলেও সেগুলো অচল অবস্থায় দেখা গেছে। এছাড়া বিভিন্ন ফ্লোরে থাকা অগ্নি নির্বাপক যন্ত্রগুলোও অকেজো অবস্থায় দেখা গেছে।

এছাড়া শহরের নোভা মেডিকেল ও হোটেল হাসান ইন্টারন্যাশনালের ভবনে অগ্নি নির্বাপণের দুর্বল ব্যবস্থার প্রমাণ পান ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। এ সময় তাদেরকে দ্রুত অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা সচল করার তাগিদ দেয়া হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক ওয়াদুদ রহমান বলেন, আইসিটি পার্ক ছাড়া আরও দুটি ভবনের নিজস্ব অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাও খুবই দুর্বল এবং সিঁড়িগুলো খুবই সরু। ভবনের মালিকরা তাদের অগ্নি নির্বাপণের ব্যবস্থা ভালো করার জন্য ১৫ দিনের সময় চেয়েছেন।

ফায়ার সার্ভিসের তথ্য মতে, যশোরে ৬৫টি বহুতল ভবন রয়েছে। যার অধিকাংশের অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাপনা খুবই দুর্বল। ইউএনবি।