advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

'বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর কারণে যদি পথচারী বা অন্যকারো মৃত্যু হয় তাহলে প্যানাল কোড ৩০২ ধারায় চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন দিতে বাধ্য থাকবেন আদালত' এমন মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তবে চালকের বেপরোয়াভাবে চালানোর বিষয়টি প্রমাণ হতে হবে। আইনমন্ত্রী বলেন, 'এমন মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যা হিসেবে বিবেচিত হবে।'

anisul haque law minister bd 1

জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘নিরাপদ সড়ক: আইনের প্রয়োগ ও জনসচেতনতা’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে রোববার এসব কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, 'মনে রাখতে হবে দুর্ঘটনা আর হত্যা এক নয়। সব আইনেই এটা লেখার প্রয়োজন নেই যে হত্যার জন্য মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিতে হবে।'

সড়ক দুর্ঘটনা বিষয়ক গোলটেবিল বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী, বিআরটিসির চেয়ারম্যান ফরিদ আহমদ ভূঁইয়াসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

দুর্ঘটনা বিষয়ক আইনের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, 'গত বছর বহুল আলোচিত 'সড়ক ও পরিবহন আইন-২০১৮' আইন জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে। ইতোমধ্যে আইন প্রণয়ন হয়েছে। বর্তমানে বিধিমালা তৈরির কাজ চলছে। বিধিমালা প্রণয়নের সঙ্গে সঙ্গেই আইনটি কার্যকর করা হবে।'

মন্ত্রী বলেন, ‘যদি দেখা যায়, চালক বেপরোয়া গাড়ি চালানোর জন্যই দুর্ঘটনা ঘটেছে এবং মৃত্যু হয়েছে। তাহলে প্যানাল কোডের ৩০২ ধারায় বিচার করতে তো কোনো বাধা থাকবে না। কেননা তখন সেটা দুর্ঘটনার মধ্যে থাকবে না। সেটা হত্যা হয়ে যাবে।'

sheikh mujib 2020