advertisement
আপনি দেখছেন

জামিন পেয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ এবং যুগ্ম মহাসচিব ও ডাকসুর সাবেক জিএস খায়রুল কবির খোকন। পুলিশের রিমান্ড আবেদন ও আসামিপক্ষের জামিন আবেদনের শুনানি শেষে আজ বিকেলে ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিম (সিএমএম) আবু সাঈদের আদালত এ দুজন ছাড়াও জাতীয়তাবাদী হকার্স দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেনের জামিন মঞ্জুর করেন।

hafiz khokonবিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ এবং যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন

এর আগে হাইকোর্টের সামনে পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে শাহবাগ থানায় দায়েরকৃত মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য বিএনপি নেতা মেজর হাফিজ ও খায়রুল কবির খোকনের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. দেলোয়ার হোসেন।

অন্যদিকে বিএনপি নেতাদের পক্ষে জামিনের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে করে ১০ হাজার টাকা মুচলেখায় তাদের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে আজ সকাল সোয়া ১০টার দিকে হাইকোর্টের গেটের সামনে থেকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনকে গ্রেপ্তার করে শাহবাগ থানা পুলিশ। এরপর দুপুর দেড়টার দিকে হাইকোর্ট এলাকা থেকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মঙ্গলবার হাইকোর্টের সামনে বিএনপির একদল নেতাকর্মীদের বিক্ষোভের সময় সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হন। এসময় বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করেন বিএনপির কর্মীরা।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান বাদী হয়ে ২০-২৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৪৭৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলাতেই মেজর হাফিজ এবং খায়রুল কবির খোকনকে গ্রেপ্তার করা হয়।