advertisement
আপনি দেখছেন

সীমান্তে ভারতীয় অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন স্থানীয় গ্রামবাসী। বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহীর চরখানপুরে পালাক্রমে এই কাজ করছেন গ্রামটির প্রায় ২৫০ থেকে ৩০০ বাসিন্দা।

border gurd peopleভারতীয় অনুপ্রবেশ ঠেকাতে রাত জেগে গ্রামবাসীদের পাহারা

এ ব্যাপারে চরখানপুর বিজিবি ইনচার্জ নায়েক সুবেদার নজরুল ইসলাম বলেন, বুধবার সীমান্তপথে ভারতীয় অনুপ্রবেশকারীরা আসতে পারে এমন সংবাদ পাই। পরদিন স্থানীয় ইউপি সদস্য এরশাদুল হক ও কোহিনুর বেগমকে ডেকে নিয়ে বৈঠক করি। গ্রামবাসীরা সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সকাল ছয়টা পর্যন্ত পালাক্রমে সীমান্ত পাহারা দেবেন বলে সেখানে সিদ্ধান্ত হয়।

ওই দিন সন্ধ্যা থেকেই সীমান্ত পাহারা দেয়ার জন্য বিজিবির সঙ্গে যোগ দেয় গ্রামবাসীরা। তাদেরকে এ কাজে উৎসাহ দিতে সবার জন্য খাবারেরও ব্যবস্থা করা হয় বলে জানান নায়েক সুবেদার নজরুল ইসলাম।

স্থানীয় ইউপি সদস্য এরশাদুল হক বলেন, গ্রামের মানুষদের বুঝিয়ে এই দায়িত্ব পালনে উৎসাহ দেয়া হয়েছে। পালাক্রমে সবাই এই দায়িত্ব পালন করছেন। এ কাজে বিজিবি সব ধরনের সহযোগিতা করছে।

চরখানপুর গ্রামের বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, টর্চলাইট ও লাঠি হাতে নিয়ে নিয়মিত সীমান্ত পাহারা দিচ্ছেন তারা। গ্রামটির পশ্চিম পাশের একটি মাঠের সম্পূর্ণ অংশই ভারতীয় সীমানায় পড়েছে। এর পাশ দিয়েই বাংলাদেশের সীমান্তরেখা। এই রেখা বরাবর দাঁড়িয়ে তারা অনবরত টর্চলাইট ঘোরাতে থাকেন।

গ্রামবাসীর সঙ্গে সীমান্ত পাহারা দেয়া দশম শ্রেণির ছাত্র মিন্টু শেখ বলেন, পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে সন্ধ্যা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এ কাজ করা হয়। দেশের জন্য বিজিবিকে সহযোগিতা করতে পেরে অনেক খুশি সে।