advertisement
আপনি দেখছেন

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজের প্রতিবাদে এবং তার মুক্তির দাবিতে আগামী ১৫ই ডিসেম্বর রোববার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে তার দল। সেই সঙ্গে আগামীতে কঠোর আন্দোলনেরও হুমকি দিয়েছে বিএনপি।

fakhrul at press 3rd jonu 2019

বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। মির্জা ফখরুল বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজের প্রতিবাদে এবং তার মুক্তির দাবিতে রোববার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে। বিজয়ের মাস বিবেচনায় এ কর্মসূচি দেওয়া হলো।

তিনি বলেন, রোববার দেশব্যাপী সুবিধা মতো সময়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হলেও ঢাকা মহানগরীর থানাগুলোতে দুপুর দুইটার পর কর্মসূচিটি পালিত হবে। সেই সঙ্গে বিএনপির পূর্ব ঘোষিত শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবসও পালন করা হবে বলে জানান ফখরুল।

বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুসহ সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বৈঠকে খালেদা জিয়ার আইনজীবী দলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীনও উপস্থিত ছিলেন। 

এর আগে বৃহস্পতিবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে করা আপিল আবেদন খারিজ করে দেন আদালত। সকাল ১০টায় আপিল বিভাগের এই শুনানি শুরু হয়। পরে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ৬ বিচারকের আপিল বেঞ্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে সর্বসম্মত আপিল খারিজের সিদ্ধান্ত নেন।