advertisement
আপনি দেখছেন

সারা দেশের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে চলছে। পৌষ মাসের শুরুতেই হঠাৎ করে জেঁকে বসা তীব্র শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল ও ঢাকাসহ পুরো দেশের মানুষ। এর প্রভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

winter across the country

বৃহস্পতিবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৭ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কুড়িগ্রামের তাপমাত্রা এক অঙ্কে নেমে এসেছে। সেখানে ভোরে তাপমাত্রা ৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। অন্যদিকে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে টেকনাফে ২৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, নিলফামারী, যশোর, চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং এটি অন্যান্য অঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ঢাকার আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘তাপমাত্রা আগামী দুই দিন অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ২২ ডিসেম্বর থেকে তাপমাত্রা আবার বৃদ্ধি পেতে পারে।’

জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে সারা দেশে একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। সারা দেশের রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে ও দিনে তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।