advertisement
আপনি দেখছেন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের ক্ষণগণনা (কাউন্টডাউন) শুরু হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ক্ষণগণনার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

hasina rehana joy

এর আগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মুহূর্তটিকে স্বরণীয় করতে অবতরণ করে একটি প্রতীকী বিমান। রুপক আলোকবর্তিকার মাধ্যমে জাতির পিতাকে অভ্যর্থনা ও গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

একই সঙ্গে দেশের প্রত্যেকটি জেলা, উপজেলা ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ক্ষণগণনা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এছাড়া দেশের ১২টি সিটি কর্পোরেশনের ২৮টি জায়গায়, বিভাগীয় শহর, ৫৩ জেলা, দুই উপজেলা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাজধানীতে মোট ৮৩টি স্থানে ক্ষণগণনার ঘড়ি বসানো হয়েছে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সময় এই স্থানেই বিমান থেকে অবতরণ করেছিলেন। সে সময় তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছিল লাখ লাখ জনতা।

এদিকে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতীয় কমিটি ও একটি বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্যান্যরা হলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার, প্রধান বিচারপতি, সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা, আওয়ামী লীগের গত সরকারের ১০ জন মন্ত্রী, বর্তমান সরকারের মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, ঢাকার দুই মেয়র, তিন বাহিনীর প্রধান, পুলিশ মহাপরিদর্শক, কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, দুজন সাবেক গভর্নর, বিভিন্ন ধর্মের মানুষের প্রতিনিধি এবং বেশ কয়েকজন সাংবাদিক, শিল্পী ও সাংস্কৃতিক কর্মী।