advertisement
আপনি দেখছেন

কিউবার রাজধানী হাভানায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণের প্রস্তাব দিয়েছেন কিউবায় বাংলাদেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত মোঃ জুলফিকার রহমান। প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে কিউবার প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল মারিও ডিয়াজ-কানেল ব্যারমুডেজ ভাস্কর্য নিমার্ণে সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

bangabandhu sculpture will be built in cuba

বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ব্যারমুডেজ বলেন, হাভানায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হলে তা হবে বাংলাদেশ ও কিউবার বন্ধুত্বের ঐতিহাসিক স্মারক। যা দু'দেশের জনগণকে যুগ যুগ ধরে দৃঢ় বন্ধুত্বের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

বিবৃতিতে আরো উল্লেখ করা হয়, রাষ্ট্রদূত মোঃ জুলফিকার রহমানের সাথে পরিচয় পর্ব শেষে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করেছেন কিউবার প্রেসিডেন্ট।আলোচনায় বাংলাদেশের সঙ্গে কিউবার স্বাস্থ্য, ফার্মাসিউটিক্যালস, শিক্ষা এবং কূটনৈতিক প্ৰশিক্ষণের বিষয়ে ঐক্যমত পোষণ করেছেন প্রেসিডেন্ট ব্যারমুডেজ। এ বিষয়ে দু'দেশের আনুষ্ঠানিক বৈঠকের মাধ্যমে চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কিউবায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে একটি প্রস্তাব দিলে তাতে রাজি হয়ে সর্বোচ্চ সহযোগিতার আশ্বাস দেন ব্যারমুডেজ।

আলোচনায় বাংলাদেশ ও কিউবার ঐতিহাসিক বন্ধুত্ব, মুক্তযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে কিউবার শর্তহীন সমর্থন এবং বঙ্গবন্ধু ও কিউবার মহান নেতা ফিদেল ক্যাষ্ট্রোর মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধার সম্পর্কের বিষয়টি তুলে ধরেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত।

উল্লেখ্য, মো. জুলফিকার রহমান একই সঙ্গে কিউবা, বলিভিয়া, চিলি, প্যারাগুয়ে ও উরুগুয়ের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত।