advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 14 মিনিট আগে

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তাই সুচিকিৎসার জন্য মুক্তি চেয়ে বিশেষ আবেদন করার কথা ভাবছে তার পরিবার। শুক্রবার বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষা‍‍ৎ শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তার বোন সেলিমা ইসলাম।‍

khaleda sister selima in bsmmu

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তার গায়ে জ্বর আছে। তিনি শুধু বমি করছেন এবং ব্যথায় কাতরাচ্ছেন। তার বাম হাত সম্পূর্ণ বেঁকে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্য কোনো হাসপাতালে নিতে হবে। এ হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) তার সুচিকিৎসা সম্ভব না।

সেলিমা ইসলাম আরো বলেন, বর্তমানে খালেদা জিয়ার শরীরের যে অবস্থা, এভাবে এখানে (বিএসএমএমইউ) বেশি দিন থাকলে তাকে আর জীবিত বাসায় নেয়া সম্ভব হবে না।

খালেদার মুক্তির জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে কোনো বিশেষ আবেদন করা হবে কিনা- জানতে চাইলে সেলিমা বলেন, তারা এ ব্যাপারে ভাবছেন। তবে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেননি।

বিএসএমএমইউ হাসপাতালের ডাক্তাররা খালেদা জিয়াকে কেমন দেখছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ হাসপাতালের ডাক্তারদের চিকিৎসা কোনো কাজ করছে না। গত এক বছরের কাছাকাছি সময় ধরে খালেদা এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হচ্ছে না। তার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আসছে না। আজও তার ডায়াবেটিস ১৫।

khaledas family visit her

নির্বাচনের বিষয়ে খালেদা জিয়া কোনো বার্তা দিয়েছেন কি না- জানতে চাইলে সেলিমা ইসলাম বলেন, তিনি তো কথাই বলতে পারছেন না। তবে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। 

এর আগে বিকাল ৩টার দিকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেতে যান বোন সেলিমা ইসলাম, ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার, তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা ও ছেলে অভিক এস্কান্দার, আরেক ভাই সাইদ এস্কান্দার ও তার স্ত্রী নাসরিন এস্কান্দার।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার জানান, খালেদা জিয়ার সঙ্গে করতে সাক্ষাৎ প্রার্থীর তালিকায় তার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর শাশুড়ি ফাতেমা রেজার নাম দেওয়া হয়। কিন্তু কর্তৃপক্ষ তা অনুমোদন না করায় তিনি হাসপাতালে এসেও ঢুকতে পারেননি।

sheikh mujib 2020