advertisement
আপনি দেখছেন

মহান একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে বিনম্র শ্রদ্ধা ও যথাযথ মর্যাদায় জাতির পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একুশের প্রথম প্রহর ১২টা ১ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তারা।

president pm tribute

প্রথমে রাষ্ট্রপতি এবং এর পরপরই প্রধানমন্ত্রী শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। এ সময় 'আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/ আমি কি ভুলিতে পারি...' কালজয়ী গানটি বাজানো হয়। পুষ্পস্তবক অর্পন শেষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী সেখানে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় প্রধান হিসেবে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের নিয়ে দ্বিতীয়বারে মতো পুষ্পস্তবক অর্পন করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তাদের পরে শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এর পর পুষ্পস্তবক অর্পন করেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া।

তাদের পরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) হয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মেয়র সাঈদ খোকন। এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) প্যানেল মেয়র। তারপর বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদের নেতৃ‌ত্বে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন জাতীয় পার্টির নেতারা। এরপর সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী প্রধানরা এবং বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে মহা পুলিশের মহাপরিদর্শক পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সর্বসাধার‌ণের জন্য উন্মুক্ত ক‌রে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, আজ অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ১৯৫২ সালের এই দিনে বাংলাকে রাষ্ট্র ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি আদায়ের দাবিতে রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলেন সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত, সফিউরসহ বাংলার দামাল ছেলেরা।

sheikh mujib 2020