advertisement
আপনি দেখছেন

ব্লগার হত্যায় সবাই সরব কিন্তু ইমাম হত্যায় সবাই নীরব কেন, বলে প্রশ্ন রেখেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন, 'ধর্ম নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যকারী ব্লগার খুন হওয়াতে দেশ-বিদেশের সবাই সরব হয়ে উঠেছিল। বিচারের দাবীতে দেশের রাজপথেও নামতে দেখেছি অনেককে। কিন্তু মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন হত্যায় আজ সবার মাঝেই নিরবতা কাজ করছে কেন?'

hussain md ershad pic

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়নে বাংলাদেশ ইউনাইটেড পার্টির দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিনি। সেখানেই নিজের বক্তব্যে তিনি বিশেষ মহলকে উদ্দেশ্য করে এ প্রশ্ন করেন।

বক্তব্য এরশাদ বলেন, ‘ব্লগার হত্যায় সারা পৃথিবীর মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে আলোড়ন সৃষ্টি করছে। অথচ আমাদের মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, মাদ্রাসার ছাত্র প্রতিনিয়ত খুন-গুম হলেও এ নিয়ে কারোরই কোন মাথাব্যথা নেই। কিন্তু কেন? তারা মুসলমান বলে? অন্যায়ভাবে যেকোন ধর্মের বা বর্ণের মানুষকে হত্যা করা হলে একই রকম সহানুভতি দেখানো উচিত আমাদের। শুধু ধর্ম বিদ্বেষী হলেই কেন তার হত্যায় সোচ্চার হতে হবে।'

হত্যাকারীদের বিচারের দাবী জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘আমি কোন হত্যারই পক্ষে নই। যে কোনো হত্যাই নিন্দনীয়। তাই ব্লগার হত্যারও বিচার চাইছি আমি। পাশাপাশি যে ধর্মীয় ব্যক্তি বা ছাত্র-ছাত্রীদেরও খুন করা হচ্ছে তাদেরও বিচার চাইছি।'

এছাড়াও সুশীল সমাজের কাছে প্রশ্ন রেখে এরশাদ বলেন, 'ধর্ম এবং আমাদের নবীকে (স.) নিয়ে কটাক্ষ করার অধিকার কারও নেই। আমাদের প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, কারো ধর্ম নিয়ে কটাক্ষ করা যাবে না। কিন্তু যেসব ব্লগার হত্যা হয়েছে তারা কি ইসলামের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেনি?’ এছাড়াও ধর্মকে কটাক্ষ করে যারা মন্তব্য করে তাদের আগে বিচার হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন সাবেক এ প্রেসিডেন্ট।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

আহমদ শফি: ইসলাম নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে ছাড় নাই

তনু হত্যা: জাতীয় সংসদ অভিমুখে পদযাত্রার ডাক

গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে কঠোর কর্মসূচী দেবে বিএনপি

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী: নাজিমুদ্দিন ধর্ম নিয়ে লিখতো কি না খতিয়ে দেখা হবে

sheikh mujib 2020