advertisement
আপনি দেখছেন

সীমান্ত হত্যা বন্ধে ভারত যে প্রতিশ্রতি দিয়েছিল তার কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধণ শ্রিংলা। সীমান্তে মৃত্যু হার ফিফটি ফিফটি বলেও জানান তিনি। অর্থাৎ সীমান্তে দুই দেশের সমান নাগরিকের মৃত্যু ঘটেছে। আর এ হত্যা বন্ধে জয়েন্ট পেট্রোলিংয়ের ওপর জোর দেন তিনি।

sringla indian foreign secretary dhaka

আজ সোমবার ভারতীয় হাইকমিশন ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিস-এর যৌথ আয়োজনে রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে সকালে দুই দিনের সফরে ঢাকায় আসেন শ্রীংলা।

ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন বিল ও আসামের এনআরসি নিয়ে তিনি বলেন, এগুলো একান্তই ভারতের অভ্যন্তরীণ ইস্যু। বাংলাদেশের ওপর এর কোনো প্রভাব পড়বে না।

এটি বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ওপরও কোনো প্রভাব ফেলবে না বলে আশা করেন তিনি।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিষয়ে ভারতীয় পররাষ্ট্র সচিব বলেন, রোহিঙ্গাদের রাখাইনে মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের যেকোনো উদ্যোগে ভারতের সমর্থন থাকবে।

আগামী ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে অংশ নিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঢাকা আসছেন জানিয়ে শ্রিংলা বলেন, তাৎপর্যপূর্ণ ওই সফরে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের আগামী রূপরেখা নিয়ে আলোচনা হবে।

এ ছাড়া শ্রিংলা তার বক্তৃতায় বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে কথা বলেন।

সেমিনারের প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী।

মোদির ওই সফর ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাওয়ার বিষয়ে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে বলে তিনিও আশা প্রকাশ করেন।

sheikh mujib 2020