advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্তের পর পরই মাস্কের দোকানগুলোতে দেখা দিয়েছে ক্রেতাদের ভিড়। সুযোগ পেয়ে ইচ্ছামতো দামও বাড়িয়েছেন বিক্রেতারা। তাই জনসাধারণের সুবিধার্থে সার্জিক্যাল মাস্কের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৩০ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

surgical mask

বুধবার রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সার্জিক্যাল মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ নিশ্চিত এবং মূল্য নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভায় তিন স্তরের সার্জিক্যাল মাস্কের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৩০ টাকা নির্ধারণ এবং তা বিজ্ঞাপন আকারে জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। কেউ যদি নির্ধারিত মূলের চেয়ে বেশি দামে মাস্ক বিক্রি করে, তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাশাপাশি মাস্ক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে একই ডিস্ট্রিবিউটরের (সরবরাহকারী) কাছে একটি ইনভয়েসে ৫০০ পিসের বেশি সার্জিক্যাল মাস্ক সরবরাহ না করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ ছাড়া হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের পণ্যটি প্রাপ্তি নিশ্চিত, ৫০ এমএল সাইজে উৎপাদন এবং এর সরবরাহ বৃদ্ধির নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।