advertisement
আপনি দেখছেন

বিশিষ্ট গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও বিএনপির নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের উপদেষ্টা শফিক রেহমানকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। আজ আদালতে তার বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করে ডিবি। পরে আদালত পাঁচ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এ দিকে শফিক রেহমানকে দ্রুত মুক্তি দেয়ার দাবি করেছে বিএনপি। না হলে কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী আহমেদ।

court approved 5 days remand for shafiq rehman

প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টার মামলায় তাকে আজ সকালে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। ডিবি পুলিশ বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক পরিচয়ে তার বাড়িতে ঢোকেন এবং তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যান।

এ সময় শফিক রেহমানের বাড়ির দারোয়ান তাদেরকে বাধা দেন। কারণ তখনও তিনি জানতেন না যে, সাংবাদিক নয় ডিবি এসেছে শফিক রেহমানকে গ্রেফতার করতে। পরে দারোয়ানকে মেরে তাকে চুপ করে থাকতে বলে ডিবি। এ সব তথ্য সংবাদ মাধ্যমকে জানান শফিক রেহমানের স্ত্রী। 

শফিক রেহমানকে গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নেয়া প্রসঙ্গে সংবাদ মাধ্যমকে ডিবির উপকমিশনার মারুফ সরদার বলেন, '২০১৩ সালে যুক্তরাষ্ট্র গিয়ে সজিব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন শফিক রেহমান।' এ নিয়েই ২০১৫ সালে শফিক রেহমানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

এ দিকে শফিক রেহমানকে মুক্তি দেয়ার কথা বলে সরকারের প্রতি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, 'শফিক রেহমান এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আব্দুল মান্নানকে দ্রুত মুক্তি না দিলে আমরা কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করবো।'

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

শফিক রেহমান গ্রেফতার

গাজীপুর সিটি মেয়র ফের গ্রেফতার

২৪ এপ্রিলকে জাতীয় শোক দিবস করার দাবী

জয়: মার্কিন পুলিশের চেয়ে আমাদের পুলিশ কম হত্যা করেছে

sheikh mujib 2020