advertisement
আপনি দেখছেন

শফিক রেহমানের রিমান্ড বাতিল করে তাঁর মুক্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার দুপুরে রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন রোডে শফিক রেহমানের বাসায় গিয়ে তিনি এ দাবি জানান। এ সময় তিনি শফিক রেহমানের স্ত্রী তালেয়া রেহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

mirza fokhrul

ফখরুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে নেওয়া অমানবিক। তাঁর মতো মানুষকে রিমান্ডে নেওয়া কাম্য নয়।

এরপর সাংবাদিকদের সাথে মির্জা ফখরুল বলেন, যারাই সরকারের বিরোধী মত পোষণ করে, সরকার কোনো না কোনোভাবে তাদের গ্রেপ্তার করছে। শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তার তারই অংশ।

এ সময় তাঁর সঙ্গে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুল আউয়াল মিন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টার মামলায় শফিক রেহমানকে গতকাল সকালে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। ডিবি পুলিশ বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক পরিচয়ে তার বাড়িতে ঢোকেন এবং তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যান।

এ সময় শফিক রেহমানের বাড়ির দারোয়ান তাদেরকে বাধা দিলে তারা দারোয়ানকে মেরে তাকে চুপ করে থাকতে বলে। এ সব তথ্য শফিক রেহমানের স্ত্রী সংবাদমাধ্যমকে জানান।

শফিক রেহমানকে গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নেয়া প্রসঙ্গে সংবাদ মাধ্যমকে ডিবির উপকমিশনার মারুফ সরদার বলেন, '২০১৩ সালে যুক্তরাষ্ট্র গিয়ে সজিব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন শফিক রেহমান।' এ ব্যাপারে ২০১৫ সালের আগস্টে পল্টন থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পরে সেটি মামলায় রূপান্তরিত হয়। শফিক রেহমানকে সেই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। গ্রেফতারের পরে এই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

 
আপনি আরও পড়তে পারেন

হাতিয়ায় সিমেন্টের ক্লিংকার ভর্তি লাইটার জাহাজ ডুবি

আইনমন্ত্রী: শফিক রেহমান নির্দোষ হলে অবশ্যই মুক্তি পাবেন

খালেদা জিয়ার আবেদন আদালতের নামঞ্জুর

প্রধানমন্ত্রীপুত্র: শফিক রেহমান সাংবাদিক নয় অপরাধী

sheikh mujib 2020